পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/৫৯৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


হাঁরশঙ্করবাব বারান্দায় ইজি-চেয়ারে উপরেশন করিলেন। রামকিষণ তামাক দিয়া গেল। হরিশঙ্করবাব বলিলেন, “সকুমার. তোমায় কবে আপিসে জয়েন করতে হবে"পরশ। কালই আমি কলকাতায় ফিরবো ভাবছি।" “কোন ট্রেণে ?” “বিকেলের ট্রেণে!” “আমিও ত ঐ ট্রেণেই শোভনাকে কলেজে রাখতে যাব।” “ভালই হ’ল, তা হ’লে যাবে।" বলিয়া সরুমার নীরব হইল। রশঙ্করবার ও নীরবে ধামপান কৗর Iাগলেন। --- ు હર মিনিটকাল অপেক্ষা করিবার পর সঙ্কুমার হঠাৎ বলিয়া উঠিল, "হরিশঙ্কর বাব, আজ আমি একটা বিশেষ কথা আপনাকে বলবার জন্যেই অপেক্ষা করছি।" হরিশংকরবাবর মখে ঈষৎ হাসির রেখা দেখা দিল, কিন্তু অন্ধকারে সকুমার উহা দেখিতে পাইল না। তিনি শান্তস্বরে বললেন, “কি বলবে, বল।” সকুমার তখন তাহার আবেদন জানাইল। নিজ দারিদ্রোর কথাও অপকটে প্রকাশ করল। সশোভনা যে উহা জানিয়া শনিয়াই তাহার সহধর্মিণী হইতে সম্মত, সে কথাও বলিতে সে ক্রটি করিল না। - সকুমারের কথা শেষ হইলে, হরিশংকরবাব কিয়ংকাল মৌন হইয়া রহিলেন। সকুমারের বকটি দর্য দর্য করতে লাগিল—খন আসামী যেন জজ সাহেেবর রায় শুনিতে আসিয়াছে। অবশেষে হরিশপ্তকরবাব বললেন, “আচ্ছা, স্কুমার, তোমরা ত পাকা হিন্দ ?” “আজ্ঞে হ্যাঁ।”

  • "আঙ্কে না।”

"তোমার মা বেচে আছেন বলেছিলে না ?” “হ্যা।” হরিশঙ্করবাব আবার মৌনভাব ধারণ করিলেন। সকুমার, মনে মনে ভাবিতে লাগিল, তাঁহার এ সব প্রশেনর অর্থ কি ? শেষে হরিশপ্তকরবাব বললেন, “দেখ, তুমি তোমার সাংসারিক অবস্থার কথা যা বললে, সেটা আমার পক্ষে কোনও বাধা নয়। মেয়ের বিয়ের সময় জামাইকে আমি যে যৌতুক দেবো, তাতে অনেক বছর তাদের জীবন সখে-স্বচ্ছন্দে কেটে যেতে পারবে। আমার ঐ একমাত্র মেয়ে। আমার অবত্তমানে সমস্তই আমার মেয়ে-জামাইয়ের হবে। তবে আর একটা বাধা আছে—সে বিষয়ে আজ রাতটা আমায় বিবেচনা করতে সময় দাও -আমি কাল সকলে তোমার কথার উত্তর দেবো।" পরদিন বেলা আটটার সময় স্কুমার যখন হরিশপ্তকরবাবরে শয়নকক্ষ হইতে বাহির হইল, তখন তাহার মুখখানি উল্লসিত। নীচে নামিবার সিড়ির কাছে সশোভনা দাঁড়াইয়া ছিল, কোন ভূত্যাদি তখন সেখানে গাই। সশোভনা অগ্রসর হইয়া আসিয়া জিজ্ঞাসা করিল, “বাবা কি বললেন ?” সকুমার সূশোভনাকে বক্ষে জড়াইয়া তাহার মাখ-চম্বন করিয়া বলিল, “আসছি, এলে বলবো।”—বলিয়া সে ক্ষিপ্রপদে নিম্নে অবতরণ করিল। সুশোভনাও হাসি-মুখে লিঙ্গ কাষে গেল। পরমার রোগীর কক্ষে গিয়া দেখিল, অমরেন্দ্র একা। জিজ্ঞাসা করিল, “এরা কোথায় ?” "ভালই হ’ল।”—বলিয়া সঙ্কুমার শষ্যাপাধবপথ একখানা চেয়ারে বসিয়া বন্ধর হাত ’ O:HS ’