পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/৬২২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ভট্টাচায্য বলিলেন, “বাবর বাড়ী কোথা ?” "শিউড়ী জেলায়।” “নিজ শিউড়ী।” *আজ্ঞে না ।” “কোন গ্রাম ?” “কল্যাণপরে।” ভট্টাচাৰ্য মহাশয় বলিলেন, “কল্যাণপুর ?—তবে ত আমাদের ওখান থেকে বেশী দর নয়। বাবর নাম ?” "ীরামনিধি দাস।” “আপনারা কায়স্থ ?” *আজ্ঞে হ্যাঁ।” “পিতার নাম ?” “ঈশবর রাধানাথ দাস।”—বলিতে বলিতে রামনিধিবাবর কন্ঠ যেন রন্ধ হইয়া আসিল । ভট্টাচাৰ্য্য মহাশয় বলিলেন, “রাধানাথ দাস ? কত বৎসর হল তিনি গত হয়েছেন ?” রামনিধিবাব বলিলেন, "তিন বৎসর।”—তাঁহার সবর বিকৃত। - ভট্টাচায্য মহাশয় একটা ভাবিয়া বলিলেন, "তিন বৎসর ?—কই চিনতে পারলাম না।” —কথা কহিতে কহিতে ডালে ভাতে মাখিতেছিলেন, সে মাখা ভাত ফেলিয়া রাখিয়া ভট্টাচায্য মহাশয় হাত গটাইলেন। - প্রথমে রামনিধি ছাড়া অপর কেহ ইহা লক্ষ্য করে নাই। ব্রুমে একজন বলিল, “ভটচাষ মহাশয়, আর কি নেবেন ?” বলিতে বলিতে তাঁহার পাতের পানে দটি করিয়া বলিল, “কই মশায়, খাচ্ছেন না ?” ভট্টাচায্য বলিলেন, “খব খেয়েছি। আর পারব কেন ?” দই তিনজন বলিয়া উঠিল, “কই খেলেন ? সব ভাতই ত পড়ে রয়েছে।” ভট্টাচাৰ্য্য মহাশয় একটু কাঠহাসি হাসিয়া বলিলেন, “আর বাবা, তোমাদের মত কি বয়স আছে ? রাত্রে বেশী খেলে আমার আবার সহ্য হয় না।” একজন বলিল, “তবে একটা দধে খান। ঠাকুর, ঠাকুর, ভটচাষ মশায়ের দধে এনে দাও ।” ঠাকুর ছটিয়া একবাটি দুধ আনিয়া দাঁড়াইল । ভট্টাচাষ্য ব্যস্ত হইয়া বলিলেন, "না, না, দুধ চাইনে ৷” “সে কি ভটচায মশায়! আপনি বলেছিলেন আফিম খান—একট দধ চাই। তাই আমরা তিন চারজনের দধে একত্র করে ক্ষীরের মত করে জাল দিইয়ে বেখেছি। খান —খেতেই হবে,—দাও ঠাকুর, বাটী নামিয়ে দাও।” ঠাকুর বাটী নামাইবার জন্য ঝাকিল। ভট্টাচাৰ্য্য মহাশয় শশব্যস্ত হইয়া বলিলেন, “না—দিও না ; নন্ট হবে—আমি খেতে পারব না। বাবদের দাও—আমি খেতে পারব না। আমার মাথাটা বড় ধরেছে।” ছাত্রেরা বুঝিল, ভিতরে কোনও কথা আছে। আর তাঁহাকে পীড়াপীড়ি করিল না। নিঃশব্দে সকলে নিজ নিজ পাত খালি করিয়া উঠিয়া পড়িল। রামনিধিবাব উঠিয়া আচমন করিয়া একেবারে নিজ কক্ষে গিয়া বার বন্ধ করলেন । তৃতীয় পরিচ্ছেদ ॥ আইন প্রসঙ্গ ছেলেরা ভট্টাচাৰ্য্য মহাশয়ের সঙ্গে সঙ্গে উপরে তাঁহার শয়নকক্ষে গেল। বলিল, "কেন আপনি খেলেন না বলন।” २१