পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/৬৩৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


এ ভ্রান্ত বিশ্বাস চর্ণ করিয়া দিব।” এইরুপ কথোপকথনে দুইজনে নদীর তীরে তীরে অগ্রসর হইতে লাগিলেন। একসথানে চরের উপর বিস্তর জালানি কাঠ জমা করা রহিয়াছে। উড়িষ্যাব জঙ্গল হইতে এই কাঠ সংগৃহীত হইয়া নদীপথে ভাসাইয়া আনা হয় । এক মাইল পথ অতিক্লান্ত হইলে, নদীর জল বেশ ঘোরালো দেখা গেল। সেখানে গভীরতা সম্ভবতঃ অধিক। প্রভাতের নবীন কিরণে নদীর জল সবচ্ছ সবজবর্ণ ধারণ . করিয়াছে। তটপ্রান্ত পাথর দিয়া বাঁধানো। সেই পাথরের উপর দইজন কিছুক্ষণ বসিয়া শ্রান্তি দরে করিলেন। অলপ দরেই একটি সন্দীঘ উচ্চ সদ্য চণকাম করা প্রাচীর দেখা যাইতেছিল। ঝাউ, দেবদার প্রভৃতি বক্ষের অগ্রভাগও লক্ষিত হইল। - রামনিধিবাব বলিলেন, “উহা কোনও বড়লোকের বাগানবাড়ী বুঝি ?" পল বলিল, “না, উহা গোরস্থান। দেখিবেন ? ঐদিক দিয়া ঘুরিয়া গেলে উহার গেট পাওয়া যাইবে। এটা পশ্চাদভাগের প্রাচীর ।” রামনিধি বলিলেন, "চল না, দেখিয়া আসি।” উভয়ে প্রাচীরের কোল দিয়া অগ্রসর হইয়া, ঘুরিয়া অপর দিকের ফটকে পৌঁছিলেন । স্বারে বারবান বসিয়া আছে। ভিতরে প্রবেশ করিয়া রামনিধিবাব দেখিলেন, স্থানটি ফলে ফলে লতায় পাতায় অতি মনোরম। ভাল ভাল গোলাপের গাছ—তাহাতে শেবত, পীত, রক্ত গোলাপ ফুটিয়াছে। বিচিত্রবণ বিলাতী ফলের গাছ-পপি, ব্লু-বেল, মাগরিটা, প্যান্সি প্রভৃতি। নানা প্রকার পাতাবাহারের গাছ। মালীগণ নানা স্থানে কায্যে ব্যস্ত। কেহ ফুলগাছে জল দিতেছে, কেহ ঘাস নিড়াইতেছে, কেহ শাকপত্র কুড়াইয়া থানান্তরিত করিতেছে। } গোরস্থানটির সবত্র রক্তকঙ্করময় পথ নানা শাখায় বিভক্ত হইয়া রহিয়াছে। ছোট ফলগাছ ছাড়া বড় ফলগাছও আছে। কণিকার, করবী, কুচ্চি কৃষ্ণচূড়া প্রভৃতি। দেবদাররে নবপত্রগুলি বায়ভরে তর তর করিয়া কাঁপতেছে। পাখীগণ বাক্ষশাখায় বসিয়া কলরব করিতেছে। সবার পরিকার পরিচ্ছন্ন। কোথাও একটি কুটা পৰ্যন্ত পড়িয়া থাকিবার উপায় নাই। কিয়ৎক্ষণ ভ্রমণ করিতে করিতে, হেড মালী দুইটি ফলের তোড়া বধিয়া আনিয়া দুইজনকে উপহার দিল। রামনিধি তাহাকে চারি আনা বখসিস করিলেন। গোরস্থানে সব্বত্র ঘরিয়া ঘরিয়া দইজনে সমাধি-লিপি পাঠ করিতে লাগিলেন। দেখা গেল, শত বৎসরের পরাতন সমাধি পৰ্যন্ত রহিয়াছে। বেড়াইতে বেড়াইতে হঠাৎ রামনিধিবাবু বলিলেন, "আচ্ছা এত সমাধি দেখিলাম, দেশীয় খাটানের ত একটিও দেখিলাম না ? এখানে দেশীয় খাটানেরা অমর নাকি ?” পল বলিল, “দেশীয় খন্টনের গোরস্থান পথক। ইহার পাশেই আছে। ঐ যে দরে দেওয়াল দেখা যাইতেছে, ঐ দেওয়ালের পর দেশীয় খাটানের গোরস্থান।" রামনিধির বক্ষে আবার সেই পরাতন ব্যথা দিবগণে বলে বাজিয়া উঠিল। বলিলেন, “পথক ? গোরস্থানও পথক ?” མ་ཧཱ་༑ קיי ייןaד দেখি יין "আছে বইকি। তোমার, আমার, ভাইয়েরা বোনেরা সেখানে আছে। অপমানিত লাঞ্ছিত আমাদের সবজাতিরা সেখানে আছে। চল দেখি গিয়া।" "আচ্ছা, চলন।” যাইতে যাইতে রামনিধি বলিলেন—“দেশীয় খন্টান মরিলে, কি এখানে তাহার প্রবেশ নিষিদ্ধ ?” ·8w)