পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/৬৪৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বাহির করিল। "Heads, I win-tails, you lose" বলিয়া পেনিটা তক্তনীর উপর রাখিয়া বন্ধাঙ্গলির সাহায্যে সজোরে উৎক্ষিপ্ত করিয়া দিল। পেনি মেঝেতে আসিয়া পড়িল। অতুল তখন ঝ:কিয়া দেখিয়া বলিল—"Tails, you lose—যাক-আমারই জিং হয়েছে।" হেম কৃমি দীঘনিঃশ্বাস ফেলিয়া বলিল, “আচ্ছা তবে তুমিই তাকে বিয়ে কোরো।” এমন সময় জাহাজ ছাড়িবার ঘণ্টা বাজিল। উভয়ে বাহির হইয়া ডেকের উপর আরোহণ করিল। সেখানে অনেক নরনারী একত্র ছিল, কিন্তু কোন শ্যামাঙ্গীর দশন পাওয়া গেল না। জাহাজ ছাড়িয়া দিল। • পেনির ষেদিকে ইংলণ্ডরাজলক্ষী ব্রিটানিয়ার মত্তি অঙ্কিত থাকে তাহা heads এবং যে দিকে সলঙ্গল সিংহ ও ইউনিকণের মত্তি আছে সেই উলটা দিকটাকে tails বলে। তকস্থলে একজন heads ও অপর জন tails গ্রহণ করিয়া উপরিউক্ত মত পেনি ফেলিয়া দেয়-মাটিতে পড়িয়া যাহার छिउौन्न अब्रिट्झन একটা বাজিয়াছে। ল'৬নেয় নগরসীমা বহনক্ষণ অতিক্ৰম করিয়া জাহাজ এখন দই পাবে যব ও সষপের ক্ষেত্র রাখিয়া সাগরাভিমুখে ছটিয়াছে। ক্রমেই নদীর প্রসায় বন্ধি হইতেছে। ঘন্টাখানেক পরেই জাহাজ সাগরসঙ্গমে উপসিথত হইবে। যারিগণ পরস্পরকে জিজ্ঞাসা করিতেছে—“Are you a good sailor ?”—অথ"াৎ আপনি সমুদ্রপীড়ায় সহজে আক্ৰান্ত হন না ত ? এমন সময় ঢং ঢং করিয়া মধ্যাহ্নভোজনের ঘণ্টা বাজিল। অতুল ও হেম দইজনে ভোজনকক্ষে নামিয়া গেল। একট নিরিবিলি খাজিয়া দইজনে পথান গ্রহণ করিয়াছে, এমন সময় দুইটি মহিলা প্রবেশ করিলেন। একটির বয়স পঞ্চাশের কাছাকাছি, অপরটি বিংশতিবষী-যা হইবেন । যিনি বর্ষীয়সী তিনি ইংরাজমলনা সন্দেহ নাই—কিন্তু ষিনি যাবতী তাঁহার সম্বন্ধে সন্দেহ। তাঁহার গাত্রবণ ইংরাজদিগের মত অত শাদা ধবধবে নহে–যেন ইতালীয় বা পেনদেশীয়গণের মত। চল কালো। অতুল ও হেমের নিকট দিয়াই ইহায়া চলিয়া গেলেন। যাইবার সময় অতুল দেখিল, বৰ্ষীয়সী মহিলাটির হস্তে বৰ্ণক কণ, তাহাতে বংগদেশীয়-শিল্পকরের কার্যকাৰ্য্য অভ্রাতরপে বক্তমান। অতুল ও হেমের মধ্যে পরপর চোখে চোখে টেলিগ্রাফ হইয়া গেল। ই'হারা চলিয়া গেলে হেম বলিল-কিন্তু বাংগালীর মেয়ের গায়ের রঙ কি তাত পরিকার হয় ? এ’ ত প্রায় য়রোপীয়দের মত-শধে তাদের মত চোখ ঝলসানো সাদা নয়, দিব্য স্নিগ্ধ গৌরকাতি।” “কি জানি। কিন্তু আর একটা সন্দেহের বিষয় রয়েছে। বাঙ্গালীর মেয়েরা ত কখনও বিলেতে গাউন পরে আসেন না-শাড়ী পরে আসেন।” “আমার বোধ হয় অনেক দিন এ দেশে আছেন।" “য়রোপীয় মহিলাটি বোধ হয় মিস রায়ের গভণেীস (শিক্ষয়িত্রী) হতে পারেন।" “ওঁর হাতে বাঙ্গলা বালাটি লক্ষ্য করেছিলে ?” “করেছিলাম। মিস রায় উপহার দিয়ে থাকবেন, আশ্চৰ্য্য কি ?” অতুল ও হেম এইরুপ কথোপকথন করিতে করিতে আহার সমাধা করিল। মাঝে মাঝে কক্ষের অপর প্রান্তে, অনমিত মিস রায়ের প্রতিও দটি নিক্ষেপ করিতেছে। আহার সমাধান হইলে দুইজনে ডেকে উঠিয়া দুইটি বহৎ চারটি ধরাইল। ঐ দরে সমদ্র দেখা যাইতেছে--তাহার তরঙ্গায়িত সনীল দেহময় শত্র ফেনপঞ্জ নত করিতেছে। দইখানি ডেক-চেয়ারে বসিয়া একদটে দুইজনে তাহাই দেখিতে লাগিল। ইতিমধ্যে পরোক্ত মহিলা দুইজনও ডেকে আসিয়া পৌঁছিলেন। অতুল ও হেম নন সিলি স্টেনে দল অহা সুস্থত হল প্ৰতিঘাত তি - 8