পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/৬৫১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পাইয়া বলিল, “কি গান গাহিব ?” হেম বলিল, ”তোমার একটা হাসির গান গাও না।” “হাসির গান ? শুনিয়া আপনার হাসেন যদি ?” কুমারী লীলা বললেন, “হাসিব বইকি " হাসির গানে হাসিল না ?” অতুল বলিল, “তার চেয়ে বরং একটা করণ রসের গান গাই। আপনারা হাসিবেন, সে আমি সহ্য করিতে পারিব না। আমার মনে হইবে, গানের জন্য নহে, গানে আমার অক্ষমতা দেখিয়া আপনার হাসিতেছেন। আমি একটি নিরাশ-প্রণয়ের-—করণেরসের গান গাই ।” মিসেস রায় বলিলেন, “আশা করি আপনি নিজে একজন নিরাশ-প্রণয়ী নহেন।” কৃত্রিম দীঘনিঃশ্বাস ত্যাগ করিয়া অতল বলিল, “হাঁ মিসেস রায়—আমিও একজন নিরাশ-প্রণয়ী ? - একদিন সন্ধ্যাকালে একটি বাগানে, আমি আমার হৃদয়ের সমস্ত ভালবাসা একজন বালিকাকে অপণ করিয়াছিলাম। সে নিষ্ঠর উপেক্ষার সহিত তাহা প্রত্যাখ্যান করিয়া চলিয়া গেল। সেই অবপি আমার জীবন শ্মশানতুল্য হইয়া গিয়াছে।” কুমারী রায় বলিলেন, “তাইত ; এ ঘটনা কোথায় ঘটিল - এখানে না লন্ডনে ?” ”এখনেও নয় লন্ডনেও নয় । দেশে--দেশে মিস রায় ; আমার বয়স তখন দশ বৎসর —তাহার বয়স সাত ”—বলিয়া যেন অশ্বরোধ করিবার জন্য অতুল চক্ষে রমাল দিল । শুনিয়া সকলের মহা হাসি। কুমারী রায় বলিলেন, “রােমালখানি নিংড়াইয়া ফেলন —নিংড়াইয়া ফেলাম : ওখানি চোখের জলে অত্যন্ত ভিজিয়া উঠিয়াছে।” অতুল শকে রমোলখানি লইয়া সজোরে নিংড়াইতে আরম্ভ করিল। মিসেস রায় বলিলেন, “কই, মিটার মিত্রের গান হইল কই ? গলেগ গলেপ আসল কথা ভুলিয়া যাইতেছি।” লা বলিলেন, “হাঁ মিটার মিত্র এইবার গান।” অতুল তখন পিয়ানোর নিকট বসিয়া যে গানটি গাহিল তাহার ভাবানুবাদ এই – কহিল নায়ক তিতি আশ্রনীরে— বিদায়-বিদায়—বালা : আর না আসিবে এ অভাগা জুন জানাতে হাদয় শুনিলা । কতদিনকার আশালতা মোর ছিন্ন হইল আজি ; শুকাইয়া গেল ফটেছিল যত বাসনা-কুসুম-রাজি। এমন কোমল -:... - তনখোনি তব, এমন মধর হাসি, কে জানিত ছিল, হৃদয়ে তোমার কেবল গরল রাশি ! দগধ সাহার প্রায়— অটুট যাতনা চির নিশিদিন কেমনে সহিব হায় ! কহিল নায়িকা— এ ঘোর যাতনা রহিবে না নিরবধি, সববরোগ-হর বাঁচামের পিল খাও কিছ দিন যদি। Q°