পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/৬৯৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্রকাশ কোরো না । “বেশ। আমি কাউকে বলব না। আমার যা কৰ্ত্তব্য আমি তা করলাম, এখন আপনাদের সম্বন্ধে আপনার বিবেচনা করন। তবে একটা কথা বলে রাখি। প্রকাশের এক ববাহ সত্ত্বেও, সে তাঁকে ত তাগই করেছে, সে সব চকে গেছে এই মনে করে যদি তার সঙ্গে সপ্রভার বিবাহ দেবার চেষ্টা করেন, তা হলে এ কথা আমায় প্রকাশ করতেই হবে। ব্রাহ্মসমাজের আদশ আমি কোন মতেই ক্ষম হতে দেব না -

  • স্থ না-বন্ধত্বের খাতিরেও নয়। নমস্কার।”—বলিয়া মিস মল্পিক প্রস্থান করিলেন। * নিম অপেক্ষণ পুরেই সপ্রভা আসিয়া প্রবেশ করিল। দেখিল, জননী কাঠপত্তলিকার মত o পৃদুভাবে বসিয়া। তাঁহার চক্ষ, দটি হইতে ক্ৰোধ, ঘণা ও বিরক্তি উছলিয়া পড়িতেছে। *ಸ್ತ್ರ ?—বলিয়া সপ্রভা পাবস্থিত টেবিল হইতে পত্ৰখানি উঠাইয়্য লইল। ঠিকনা পড়িয়া বলিয়া উঠিল—“এ কি মা? দেখব ?"

“দেখ ” পত্র খলিয়া পাঠ করিয়া সম্প্রভা বলিল—“এ কি মা ?” মা বললেন—“প্রকাশের সঙ্গে তোমার বিয়ে হতে পারবে না। সে বিলাতে বিয়ে করে এসেছে।” - 爷 সপ্রভা পত্ৰখানি দ্বিতীয়বার পাঠ করিল, ডাকঘরের ছাপ তারিখ দেখিল। তাহার পর চিঠিখানি সজোরে মেঝের উপর আছড়াইয়া ফেলিয়া, চক্ষে অঞ্চল দিয়া, দ্রুতবেগে নিজ শয়নকক্ষে গিয়া বার রন্ধ করিয়া দিল। - তৃতীয় পরিচ্ছেদ একঘণ্টা পরে, অতুলবাবর একজন ভ্রাতুলপত্র, সন্তোষচন্দ্রবাব আসিয়া দশম দিলেন। ইনি একজন নব্য ব্রাহ্ম; নীতি ও ধামাচরণ সম্বন্ধে কাহারও তিলমাত্র শিথিলতা দেখিলে ক্ষিপ্ত হইয়া উঠেন, এবং বিশেষ করিয়া বিলাত-ফেরত যবেকগণের উপরে একেবারে খড়্গহস্ত। সন্তোষবাব আসিয়াই খল্লতাতপত্নীর শোচনীয় অবস্থা লক্ষ্য করিলেন । জিজ্ঞাসা করিলেন—“সপ্রভা কোথা ?” “শয়ে আছে।” “এখন শয়ে ? কেন, কোন অসুখ করেছে নাকি ?” “না।” - “তবে ব্যাপার কি কাকীমা ? তোমার চেহারাই যা এ রকম হয়ে গেল কেন ? কে’দেছ ? তোমার চোখ লাল হয়ে উঠেছে, ফলেছে।--কি হয়েছে বল ত ” বিশেষ অনিচ্ছাসত্ত্বেও গহিণী তাঁহাকে সকল কথা থলিয় বলিলেন । পত্র পড়িয়া, চেয়ারের পিঠে হেলান দিয়া, দুই চক্ষ উদ্ধেৰ তুলিয়া সন্তোষধাব বলিতে লালিলেন— “আমি ত গোড়া থেকেই জানি, একটা ব্যাঘাত হবেই হবে । তোমরা যে বিলেত-ফেরত বলে একেবারে অজ্ঞান হলে ! বিলাত-ফেরতেরা কি সহজ লোক : এমন অপকৰ্ম্ম নেই যা তারা বিলাতে গিয়ে করে না। আর, এখানে ফিরে এসেই বা কি ? এক একটি মদের পিপে BB BBS BBB BBB BBB BBB BB BB BBBS BB BBBB BBS BBB BBB হল না । আর ব্রাহ্মসমাজের মেয়েদের যে কি রোগ হয়েছে—বিলাত-ফেরত নইলে তাঁদের পছন্দই হয় না। কেন রে বাপন—যারা বিলাত যায়নি তারা কি মানুষ নয় আসল কথা কি জান ? বিলাত-ফেরতের সন্ত্রী হলে বেয়ারা খানসামা সবাই মেমসাহেব বলে ডাকবে। মাঠাকরণ বলে ডাকলে যেন ওঁদের গায়ে জনর আসে–একেবারে অসহ্য । তা মেয়েদেরই বা দোষ দেব কি ! এ কালের-এ যুগের দোষ । বাহ্য চাকচিক্য দেখেই সকলে মোহিত- , ভিতরটায় পদাৰ্থ কিছু আছে কি না, তা কেউ খোঁজ নেয় না। এ চিঠি তোমাদের হতে ye &