পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/৭০১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কোরো না। সেটা অন্যায় হবে। তুমি তার কাছে বসে দাচারটে অন্য কথাবাত্তা কইতে থেক, তোমার কাকা আসামাত্র তোমার ছয়টি।”—বলিয়া গহিণী কন্যার শয়নকক্ষের দিকে অগ্রসর হইলেন। চতুর্থ পরিচ্ছেদ সন্ধ্যার পর প্রকাশচন্দ্র সমলিয়ার ধনত পরিয়া, আদিধর গিলাকরা পাঞ্জাবীর উপর রেশমী চাদরের বাহার দিয়া, আসিয়া উপস্থিত হইল। ড্রয়িং রমে প্রবেশ করিয়া দেখিল সন্তোষচন্দ্রবাব বসিয়া গ্রন্থপাঠ করিতেছেন। “সন্তোষবাব যে, নমস্কার”—বলিয়া প্রকাশ তাঁহাকে সমিতভাবে অভিবাদন করিল। সন্তোষবাব দন্ডায়মান হইয়। বলিলেন—“আসন--আসন।" -তাঁহার মুখভাব ও কন্ঠস্বর রাত্রিচর পক্ষীবিশেষের মত গম্ভীর। পনরায় বসিয়া গ্রন্থে মনোনিবেশ করিলেন। প্রকাশ ইহার প্রকৃতি পর্বোবধি অবগত ছিল। বলিল—“অত পড়বেন না-অত পড়বেন না—চোখ খারাপ হয়ে যাবে।" সন্তোষবাব ভাবিলেন, অভ্যাগত নিকটে বসিয়া থাকিতে গন্থ অধ্যয়ন করাটা ভদ্রতা হইতেছে না। কাকীমার অনুরোধ সমরণ করিয়া যথাসাধ্য প্রসন্নতা অবলম্বন করিয়া বলিলেন—“পাকারের বই পড়ছিলাম। বড় ভাল বই। আপনি পড়েছেন :“ সন্তোষবাবকে একটু রাগাইবার অভিপ্রায়ে নিরীহতার ভান করিয়া প্রকাশ বলিল-- “হ্যাঁ পড়েছি বইকি। গিলবার্ট পাকারের প্রায় সমস্ত উপন্যাসই আমি পড়েছি। ওখানা কোন উপন্যাস ?” সন্তোষবাব অন্তরে অন্তরে জনলিয়া বলিলেন—“উপন্যাস —উপন্যাস কেন হবে ? এ থিওডোর পাকারের টেন সামর্শনস”—ধৰ্ম্মম গ্রন্থ ।" প্রকাশ বলিল—“ওঃ-না, ও সব পাঁড়নি।" সন্তোষবাব আবার গ্রন্থে মনোনিবেশ করিলেন। ক্ষণপরে আত্মসম্বরণ করিয়া বলিলেন —“বিলেতে থাকতে সেখানকার ধামাজীবনের দিকটা একট চচ্চা করেছিলেন কি ?— পড়াশনো নিয়েই ব্যস্ত, বোধ হয় সময় পান নি ?" “না, পড়াশনা নিয়ে যে বিশেষ ব্যস্ত ছিলাম, তা বলতে পারিনে। তবে মাঝে মাঝে গিজায় গিয়েছি বটে, তাও প্রায় মেয়েদের রক্ষক-eেscort) সবরপ।” সন্তোষবাব মনে মনে বলিলেন—“হঃ! রক্ষকবরপ না ভক্ষকবরপ "—প্রকাশ্যে বলিলেন—“লণ্ডনে সোয়ালো স্ট্রীটে ভয়জী সাহেবের যে থাটিক চাচ্চ আছে সেখানে কখনো গিয়েছিলেন কি ? শুনেছি মাঝে মাঝে টপফোড ব্লকে সাহেব সেখানে এসে উপদেশ দেন। আমাদের ব্রাহ্মসমাজের সঙ্গে তাঁদের যথেষ্ট সহানুভূতি আছে।" প্রকাশ ভ্ৰকুঞ্চিত করিয়া বলিলেন—“কোথায় বললেন ? সোয়ালো ট্রীটে? সোয়ালা "ীট ? কোনখানটা বলন দেখি ? হাঁ—মনে পড়েছে। পিকাডিলিতে একটা সোয়ালো লীট আছে বটে। প্যালেসে যেতে আসতে সে ট্রীটের মুখটা দেখতে পেতাম—ভিতরে কখনও ঢুকিনি ৷” সন্তোষবাব আশ্চৰ্য্য হইয় বলিলেন—“প্যালেসে যেতে তাসতে ?" “হাঁ। না না, রাজবাড়ীতে নয়। রাজবড়াতে আমার গতিবিধির সংযোগ ছিল না। প্যালেস হচ্ছে একটা মিউজিক হল অথাৎ ভারাইটি থিয়েটার আর কি ! একবার একটা বড় মজা হয়েছিল। এক লর্ড বিশপের পল্লী, সন্ধ্যাবেলা ট্রেন থেকে স্টেশনে নেমে কাব নিয়ে কোচম্যানকে বলেছিলেন প্যালেসে নিয়ে চল। তিনি অবশ্য রাজপ্রাসাদ--বাকিংহাম প্যালেসে যাবেন। ক্যাবি করেছে কি, তাঁকে সোজা একেবারে প্যালেস মিউজিক হলে নিয়ে গিয়ে উপস্থিত। মহিলাটি ত একেবারে বজ্রাহত—মচ্ছা যান আর কি!" “কেন, বঞ্জাহত কেন ?" Y eq