পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/৭৩৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


DDBBB BBB BB BBB BBBS BBBB BBB D gMeBB BBgg gg geee কাররা দিলেন। ঘন ঘন শঙ্খধ্বনি হইতে লাগিল। আবার দাঁড়াইয়া উঠিলে, একটা ধামায় ভরিয়া আলোচল কলা ও অন্যান্য মাগলাদ্রব্য তাহার সম্মুখে রক্ষিত হইল—শুড় দিয়া তুলিয়া তুলিয়া কতক সে খাইল, অধিকাংশ ছিটাইয়া দিল। এইরূপে বরণ সম্পন্ন হইলে রাজহস্তীর জন্য সংগহীত সেই কদলীকান্ড ও বক্ষশাখা আদরিণী ভোজন করতে লাগিল। নিমৰ্ম্মণ রক্ষা করিয়া পীরগঞ্জ হইতে ফিরিবার পরদিন বিকলেই মহারাজ নরেশচন্দ্রের সহিত মুখোপাধ্যায় মহাশয় সাক্ষাৎ করিতে গেলেন। বলা বাহুল্য, হস্তীপাঠে আরোহণ করিয়াই গেলেন । মহারাজের দ্বিতল বৈঠকখানার নিম্নে কিতত প্ৰাংগণ। প্রাঙ্গণের অপর প্রান্তে BBBB BBBBBS DDDBBB BBB BB BBBB g BBBBBB BBBBB BBB দর অবধি মহারাজের দটিগোচর হইয়া থাকে। গ্রহণ করিলেন। মোকদ্দমা ও বিষয়-সংক্রান্ত দুই চারি কথার পর মহারাজ জিজ্ঞাসা করিলেন—“মখয্যে মশায়, ও হাতীটি কার ?” মখায্যে মহাশয় বিনীতভাবে বলিলেন--“আজ্ঞে, হজের বাহাদরেরই হাতী।” মহারাজ বিশ্চিমত হইয়া বলিলেন—“আমার হাতী কই ও হাতী ত কোনও দিন আমি দেখিনি। কোথা থেকে এল ?” “অজ্ঞে, বীরপরের উমাচরণ লাহিড়ীর কাছ থেকে কিনেছি।” অধিকতর বিস্মিত হইয়া রাজা বললেন—“তাপীল কিনেছেন ?” “আঞ্জে হ্যাঁ ।” “তবে বললেন আমার স্থাতী ?” বিনয় কিংবা পেলষসচক—ঠক বোঝা গেল না—একটু মদ হাস্য করিয়া জয়রাম বললেন—“যখন হজের বাহাদরের দ্বারাই প্রতিপালন হচ্ছি-তামিই যখন আপনার—তখন ও হাতী আপনার বই আর কার ?” সন্ধ্যার পর গহে ফিরিয়া, বৈঠকখানায় বসিয়া, সমবেত বন্ধমণ্ডলীর নিকট মুখোপাধ্যায় এই কাহিনী সকিস্তারে বিবত করলেন। হাদয় হইতে সমস্ত ক্ষোভ ও লজ্জা আঞ্জ তাঁহার মাছিয়া গেল। কয়েক দিন পরে আজ তাঁহার সনিদ্রা হইল । চতুর্থ পরিচ্ছেদ উল্লিখিত ঘটনার পর সদেীঘ পাঁচটি বৎসর অতীত হইয়াছে—এই পাঁচ বৎসরে মোন্ডার মহাশয়ের অবস্থার অনেক পরিবত্তন হুইয়াছে। নতন নিয়মে পাস করা শিক্ষিত মোক্তারে জেলাকোট ভরিয়া গিয়াছে। শিথিল নিয়মের আইন-ব্যবসায়ীর আর কদর নাই। ক্ৰমে ক্লয়ে মখোপাধ্যায় মহাশয়ের আয় কমিতে লাগিল। পাবে যত উপাঞ্জন করিতেন এখন তাহার অন্ধেক হয় কি না সন্দেহ। অথচ ব্যয় প্রতি বৎসর বধিতই হইতেছে। তাঁহার তিনটি পত্র। প্রথম দুইটি মাখ-বংশবন্ধি ছাড়া আর কোনও কম করবার যোগ্য নহে। কনিষ্ঠ পত্নটি কলিকাতায় পড়িতেছে —সেটি যদি কালক্রমে মানুষ হয় এইমাত্র ভরসা। ব্যবসায়ের প্রতি মখোপাধ্যায়ের আর সে অনরোগ নাই—বড় বিরক্ত হইয়া উঠিয়াছেন। হেকিরা মোক্তারগণ, যাহাদিগকে এক সময় উলঙ্গাবপথায় পথে খেলা করিতে দেখিয়ছেন, তাহারা এখন শামলা মাথায় দিয়া-মেখোপাধ্যায় মাথায় পাগড়ী বাঁধতেন, সেকালে মোক্কারগণ শ্যামলা ব্যবহার করতেন না) তাঁহার প্রতিপক্ষে দাঁড়াইয়া চোখ মুখে ঘরোইয়া ফর ফর দি গুলি কি কি বাদ তুমি কি কি পদে না থাক