পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/৭৫২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মিশি। প্রেমেও পড়ব না, বিবাহও করব না। এখন তবে উঠি, রাত হল।”—বলিয়া সত্যেন্দু বিদায় গ্রহণ করিল। চতুর্থ পরিচ্ছেদ কতকটা নিজের প্রবত্তির ঝোঁকে, কতকটা সরেশবাবুর উপর রাগ করিয়া , তাঁহাকে i পজার ছয়টির পর ফিরিয়া আসিয়া সবালার নিমন্ত্রণে তাহারই গহে সত্যেন্দ্র মাঝে BBB BBBBB BBB DBBS BBBBBB BB BBB BBB BBB DDB BBB —কোনও দিন এগারোটা বাজিয়া যায়। আবার—শধে নিমন্ত্রণ খাইলেই চলে না-মাঝে মাঝে প্রতিনিমন্ত্রণও করিতে হয়। স্বালাকে নিমন্ত্রণ করিয়া ডাকবা গলায় আনিয়া সত্যেন্দ্র খাওয়াইতে লাগিল। আহারের - না—সত্যেন্দ্র তাহাকে পোছাইয়া আসে । এইরুপে আরও একমাস কাটিল । একদিন দিবপ্রহরে সত্যেন্দ্র এজলাসে বসিয়া একটি মারপিটের মোকদ্দমায় সাক্ষীদের জবানবন্দি লিপিবদ্ধ করিতেছে, এমন সময় বড় ডেপুটিবাবরে নিকট হইতে চিট’ আসিল; তাহাতে ইংরাজিতে লেখা আছে—“আজ বিকালে আমার বাঙ্গলায় অবশ্য অবশ্য আসিবে—বিশেষ প্রয়োজন আছে।” সত্যেন্দ্র তাহাতে উত্তর লিখিয়া দিল— “আসিব।” মনে মনে বলিল—“না জানি আবার কি নতন গজেব শুনেছেন! আবার যদি বক্ততা করতে আসেন—অামি আজ কড়া কড়া শুনিয়ে দেব " এজলাসের পর বাড়ী গিয়া সত্যেন্দু সবালার নিকট হইতে সাধ্যভোজনের নিমন্ত্রণপত্ৰ পাইল । যথাসময়ে সরেশবাবর বাগলায় উপস্থিত হইয়া দেখিল আজ তিনি একাকী অপিস কক্ষে বসিয়া চা পান করিতেছেন । তাহাকে দেখিয়া বলিলেন—“সত্যেন্দ্ৰ—এস। একটা চা খাবে ?” সত্যেন্দ্র বলিল—“না ”—তাহার ইচ্ছা, এখানে চটপট কাজ সারিয়া, চা সবালার বাড়ীতে গিয়া পান করে । সরেশবাব আপন-মনে চা পান করিতে লাগিলেন। সত্যেন্দ্র মহামহে ঘড়ির পানে দটিপাত করিতেছে। সরেশবাব বললেন—“কোথাও যেতে হবে ? তাড়াতাড়ি আছে ?” সত্যেন্দ্র তাঁহাকে অগ্রাহ্য করার হিসাবে বলিল—“হ্যাঁ—মিস, মজুমদারের ওখানে নিমন্ত্রণ আছে।” চা-টুকু নিঃশেষ করিয়া, ভূতাহত হইতে তোয়ালিয়া লইয়া মুখ মছিতে মাছতে সরেশবাব বললেন—“দেখ সত্যেন্দ্র, সেইকালেই আমি তোমায় বলেছিলাম, তখন তুমি আমার কথা শুনলে না। তোমার আর মিস মজুমদারের ব্যাপার সাহেবের কাণে উঠেছে --সাহেব একেবারে আগন হয়ে গেছেন।” ডেপটিরা যখন "সাহেব" শব্দ উচ্চারণ করেন তখন তাহার অর্থ জেলার কালেক্টর সাহেব বুঝিতে হইবে। সত্যেন্দুের মানসিক তাপমানের পারদ হঠাৎ কয়েক ডিগ্রী নামিয় গেল । বলিল— "সাহেবের কাণে উঠেছে ? কি কথা উঠেছে ?” - ডিবা হইতে দইটা পাণ লইয়া মুখে পীরিয়া সরেশবাব বললেন—“এই দেখ না।" —বলিয়া বাক্স খালিয়া একখানা চিঠি বহির করিয়া সত্যেন্দ্রের হাতে দিলেন। কালেক্টার সাহেব স্বহস্তে আদেশ লিখিলেন, এই বেনামী পর সম্বন্ধে তদন্ত ՓԵ