পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/৭৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


“টার থিয়েটারের সম্মুখে গাড়ী পেপছিল। মহী সমারোহে চন্দ্রশেখরের অভিনয় আরম্ভ হইয়াছে। জনতা অত্যন্ত অধিক। বহলোক স্থানভিাবে টিকিট পাইতেছে না, ফিরিয়া যাইতেছে। সবোধ লম্ফ দিয়া গাড়ী হইতে অবতরণ করল। দণ্ডায়মান সমস্ত গাড়ীগুলি একে একে অন্বেষণ করিল। কোনও খানিতে সনীতি নাই। তাহার মাথা ঘুরিতে লাগিল। বধিসন্ধি লোপ হইবার উপক্লম হইল। - ফিরিবার সময় প্রত্যেক গাড়ীর গাড়োয়ানকে জিজ্ঞাসা করিল—“তুম কোই মেমসাহেবকো লায়া?” সকলেই বলিল—“না।” একজন বলিল—“হাঁ হজের লায়া।” সবোধের বকের ভিতরটা ধড়াস করিয়া উঠিল। মনে হইল এইবার যেন অকল ঘোড়া ও সেই গাড়োয়ান বলিয়াই মনে হইল। এক মহত্তে'র মধ্যে এ সমস্ত ঘটিয়া গেল। দ্বিতীয় মহত্তে সবোধ গাড়োয়ানকে জিজ্ঞাসা করিল—“কাঁহাসে লায়া ? হাওড়া টেশনে সে ?” “হাঁ হজর, হাওড়া টেশন সে লায়া।” "হামকো দেখা থা?” কোচবাক্সে বসিয়া মুখ ককাইয়া সেই অলপালোকে গাড়োয়ান সবোধের মুখ নিরীক্ষণ করিল। ভাবিয়া চিন্তিয়া বলিল—“হাঁ হােজর আপকো মাফিক একঠো সাহেবকে তো দেখা থা।” সবোধ তখন অত্যন্ত আগ্রহের সহিত বলিল—“মেমসাহেব কাঁধার গিয়া ?” “মেমসাহেব ভিতর মে তামাসা দেখ রহিহে !” শনিয়া সবোধ ভারি নিরাশ হইল। ভাবিল তবে এ ত সনেীতি নহে। সনীতি হইলে সে কখনও গাড়ী ত্যাগ করিয়া টিকিট কিনিয়া থিয়েটারের ভিতর প্রবেশ করিত না। তাহা একান্তই অসম্ভব। তথাপি ভাবিল —একবার দেখা যাউক । ভিড় ঠেলিয়া ফটক পার হইয়া সবোধ থিয়েটারের অঙ্গনের ভিতর প্রবেশ করিল। খে সক্তি টিকিট বিক্রয় করে, তাহাকে জিজ্ঞাসা করিল—”ইংরেজবেশধারিণী কোনও বঙ্গমহিলা টিকিট ক্রয় করিয়াছেন কি ?” সে ব্যক্তির নাম ভবচরণ; বলিল—“মহাশয়, কত লোক টিকিট লইয়াছে, এই ভীড়ে কি কাহারও মাখের পানে চাহিয়া দেখিবার অবসর পাইয়াছি ; তবে মনে হইতেছে যেন একজন লইয়াছেন।” - মবোধ লোকটার হাতে একখানা নোট দিয়া বলিল, “মহাশয় একবার বাহিরে আসন ।” ভবচরণ সসম্ভ্রমে বাহির হইয়া আসিল । ঔৎসক্যের সহিত বলিল—“কি মহাশয় ?” সবোধ বলিল—“আমাকে একটু সাহায্য করিতে হইবে। আপনাদের কোনও লোক দিয়া একবার সেই মহিলাটিকে সংবাদ দিতে হইবে। যদি আমার কায্য সফল হয়, তবে আর - একখানি নোট দিব।" ভবচরণ হাসিয়া বলিল—“তা মহাশয় নিশ্চয়ই করিব। একজন ভদ্রলোকের যদি উপকার করিতে পারি, তবে তা না করিব কেন ? আপনি একট অপেক্ষা করন, আমি এখনি আসিতেছি।” ললিয়া ভবচরণ একট অভূতপবে রকম আচরণ করল। একটা গোলযোগের ব্যাপার গtrkহ করিয়া, থিয়েটারের কোন ঝিকে ডাকিয় তাহার বারা উপরে সবোধের বাৰ্ত্তা না খ॥১lগৈা, ইহা নিবিববাদে হাসিল করা কোন ঝির কম নয় মনে করিয়া, সে পশ্চাৎ দিক ৷ থিয়েটারের সাজঘরে উপস্থিত হইল। দেখিল তাহার পরিচিত রোহিণী নামনী লী" পূলেন? বেগমের পরিচ্ছদ পরিয়া চেয়ারে বসিয়া তামাক খাইতেছে। ৬হকে গিয়া চাপি চপি বলিল—“একটা কাজ করবে ?” “ใจุ : “” - १० /