পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/৮৪৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বাহির হইয়া গেলেন। সরেন্দ্র চেয়ারখানি ঘরাইয়া টেবিলের সন্মথে লইয়া, দেরাজ হইতে শাবরের চামড়া বাহির করিয়া তাহার “পসি-নে” চশমাষোড়াটি পরিস্কার করিল। তৎপরে গো-পালন সবেন্ধে একখানি ইংরাজি বহি খলিয়া অধ্যয়ন আরম্ভ করিয়া দিল । পঞ্চম পরিচ্ছেদ বড়দিদি বাহির হইয়া যাইবার পাঁচ মিনিট পরেই সবুেন্দ্রের সতী টনরাণী অসিরা প্রবেশ করিল। পা টিপিয়া পশ্চাতে আসিয়া দাঁড়াইয়া কৌতুহলপণে নেত্ৰে সবামীর বহিখানির প্রতি চাহিয়া রহিল। ' বৈজ্ঞানিক গোহালের বর্ণনামধ্যে নিমজিত সরেন্দ্রনাথের নাসারন্ধে টনরাণীর কেশকলাপ হইতে উত্থিত একটি মদ-সগন্ধ প্রবেশ করিল। তাহার মন্দতর নিঃশ্বাসের শব্দও কাণে গেল। সরেস্ট্রের মনটি তখন গোহাল ভাঙ্গিয়া বাহির হইয়া পড়িল । পশ্চাতের দিকে হাত বাড়াইয়া খপ করিয়া সে টনরাণীর বসনাঞ্চল ধরিয়া ফেলিল । ধরা পড়িয়া বালিকা খিল খিল করিয়া হাসিয়া ফেলিল। সরেন বন্দিনীকে টানিয়া পাশেবর দিকে অনিল । টন বলিল, “ছাড়–ছাড়—কে এসে পড়বে।” সমরেন বলিল, “চোরকে ধরেছি, ছাড়ব কেন ?” টন অঞ্চলাগ্র জোরে টানিতে টানিতে বলিল, “আঃ—কি কর ঐ ছাড়-দোর খোলা রয়েছে—কেউ দেখতে পাবে; ছাড়–পদর্শটা টেনে দিয়ে আসি ৷” সরেন বলিল,—“জরিমানা দাও—তবে ছাড়ব ।” নিমম বিচারক তদন্ডে জরিমানা আদায় করিয়া লইল । তাহার পর সক্তি দিয়া বলিল—“পদটি টেনে দিয়ে এস।” পদী টানিয়া দিয়া টানরাণী আসিয়া স্বামীর পাশবদেশে দাঁড়াইল। বইখানির প্রতি সোৎসক দটিপাত করিয়া বলিল,—“কি বই গো ? ছবি আছে ?” - “আছে বইকি, দেখবে?”—বলিয়া সরেন্দ্র পর পর পাতা উলটাইয়া দেখাইতে লাগিল। নানা আকারের গোরু-বাছার গোহাল প্রভৃতির ছবি। - টন বলিল—“সবই গরর গল্প ?” “সব।” “রাম বল। তাই বসে বসে পড়ছ ?” SBBBS BBB BBB BB BB BBB BBB BBB B BB BBBS BB BBBBB পাখীর গলপ রয়েছে।” গত বৎসর টনরাণী বাংগালা লেখাপড় সাঙ্গ করিয়া ইংরাজি ফাস্টাবকে আরম্ভ করিয়াছিল। কিন্তু গদ্দভের পাতা অবধি পড়িয়া, আর কিছতেই অগ্রসর হইতে চাহিল না। আজ কয়েক মাস তাহার পড়া একেবারে বন্ধ আছে। সরেন্দ্র বলিল—“ষাও বা একটু শিখেছিলে, তাও ভুলে গেলে । বইখানা আন দেখি— পড়া দিই।” টন বলিল, “তোমার গোর গল্প ভাল লাগে, তুমি পড়। . আমি সে সব পড়ব না। আমার এখন এককাল গিয়ে তিনকালে ঠেকেছে। ঐ সব গোর-বছর হাড়গিলে পাখীর গল্প এ বয়সে পড়া কি আমার শোভা পায়—না ভাল লাগে ?” সরেন হাসিয়া, সন্ত্রীকে কাছে টানিয়া বলিল,—“তবে এ বয়সে তোমার কিসের গলপ ভাল লাগে ?” টন গভীর মখে বলিল, “যাতে সব ঠকুর-দেবতার কথা আছে--ষেমন মণালিনী, Iবষবৃক্ষ, স্বর্ণলতা, এই সব। পড়লে দৃদণ্ড মনটাও ভাল থাকে-পরকালেরও কাজ হয়।” সমরেন্দ্র এই নিভীক স্বীকারোন্তি শনিয়া হাসিতে লাগিল। এমন সময় বাহির হইতে ঝি বলিল—“বউদিদি ছোটবাবর ল্যু এনেছি।”