পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/৮৫৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


“আমি কিন্তু তৃতীয় শ্রেণীতে যাইব ।” তৃতীয় শ্রেণীর ভাড়াও কুমহে জানিয়া লইল। হিসাব করিয়া দেখিল, সবসিদ্ধ ২৫ পাউন্ড সংগ্ৰহ করিতে পারলে, কোনও গতিকে সে কলিকাতায় পেশছিতে পারে। কুমদ তখন বন্ধু-বান্ধবগণের নিকট ঋণ প্রার্থনা করিবার জন্য বহির্গত হইল। দ্বিতীয় পরিচ্ছেদ * * * *ಕಡ ಕ ಣ ಣ್ಣ মোড়ে কুমদ l তাহার মুখ শাক, চক্ষ বলিষা গিয়াছে, নিঃশ্বাস জোরে জোরে পড়িতেছে। সারাদিন বন্ধগণের স্বারে সবারে ঘুরিয়াও, সাত পাউণ্ডের অধিক সংগ্রহ হয় নাই। এখনও ১৮ পাউন্ডের অস্থিতি । বন্ধুরা সকলে এখানে থাকিলেও বা হইত। অনেকেই সমুদ্রতীরে গ্রমিযাপন করিতে গিয়াছে। অন্যান্য বৎসর কুমদও গিয়া থাকে, এ বৎসর কেবল অথর্মভাবেই সে যাইতে পারে নাই। যাহাদের অর্থের অনটন, সেই সকল ছাত্রেরাই লন্ডনে পড়িয়া আছে। ধার চাহিতে গিয়া দই এক স্থানে কুমদ একটু অপমানিতও হইয়াছে। সে দারণ i Iלטא প্রাতে সেই দুইটি ডিম খাইয়া বাহির হইয়াছিল, এখনও পষপন্ত সে আর জলপশও করে নাই। মানসিক উদ্বেগে ক্ষুধার কথা সে ভুলিয়াই গিয়াছে, কিন্তু তৃষ্ণায় তাহার ছাতি ফাটিয়া যাইতেছিল। অমনিবস হইতে নামিয়া মোড়ে দাঁড়াইয়া কুমদ ভাবিতে লাগিল। যাহাদের যাহাঁদের কাছে যাইবার, সে সকলই ত শেষ হইয়াছে। আরও দই চারিজন পরিচিত ছাত্র আছে বটে, কিন্তু তাহাদের মধ্যে হইতে ১৮ পাউণ্ড সংগ্রহ হওয়া অসম্ভব। কুমদ ভাবিতে লাগিল “এখন কি করি —বাসায় ফিরিয়া যাইব ? ফিরিবামাত্র ল্যাণ্ডলেড়ি তাহার সদীঘ বিলখনি আনিয়া হাজির করবে !” কিয়ন্দরে একটি উচ্চশ্রেণীর পানশালার সাইনবোড দেখা যাইতেছিল। কুমদ তাহার শ্রান্ত পদম্বয় ধীরে ধীরে সেইদিকে চালনা করিল। সেলন-বারের মধ্যে প্রবেশ করিয়া, একগ্লাস হুইস্কি ও সোডা হুকুম করিল। পরিচারক যথাসময়ে পানীর আনিয়া দিল। কুমদ হাহা করিয়া তাহা অন্ধেকের উপর এক নিঃশ্বাসে পান করিয়া ফেলিল। তাহার পর, টেবিলের উপর দুই কুনই রাখিয়া, দুই হাতে মুখ আচ্ছাদন করিয়া নিজ অদষ্ট চিন্তা করিতে লাগিল। সময়মত দেশে পৌঁছান অসম্ভব—সুতরাং সমস্তই গেল। তাহাকে পথের ভিখারী হইতে হইল। দেশ হইতে টাকা আর আসিবে না। পাব হইতে যাহাঁদের কাছে ঋণ লইয়াছে—তাহদের টাকা পরিশোধ করিতে পারবে না—তাহারা বলিবে কুমদ জয়াচোর। ল্যান্ডলেডি সম্ভবতঃ উঠিয়া যাইবার জন্য নোটিশ দিবে—বাকী টাকার জন্য জিনিষপত্রগলি আটক করবে। পরদিন, এক টকরা রটির জন্য ভিক্ষাথী হইয়া তাহাকে কাহারও দবারস্থ হইতে হইবে। কুমদ মাথা তুলিল। গেলাসে অলপ যাহা অবশিষ্ট ছিল, তাহা পান করিল। পরিচারক প্রবেশ করিয়া তাহার সমখে একখানি তাজা সান্ধ্য-সংবাদপত্র রাখিয়া জিজ্ঞাসা করিল— “আর এক গলাস আনিব কি ?” “আন”—বলিয়া কুমুদ সংবাদপত্র খলিল। অলসভাবে ইতস্ততঃ চক্ষ বলাইতে বলাইতে, বড় বড় অক্ষরে তিনছত্র হেড-লাইন দেওয়৷ অন্ধ কলমব্যাপী একটি সংবাদ দেখিতে পাইল। পড়িয়া জানিল—লিভারপল-নিবাসী একজন সম্প্রান্ত বণিক, ব্যবসায়ে অনেক ক্ষতিগ্রস্ত হইয়া এবং ঋণশোধের কোনও উপায় না দেখিয়া, গত রাত্রে তিনি - ২৬২ -