পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/৮৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সেই অনপালোকে পরস্পরের পানে চাহিয়া কতক্ষণ দাঁড়াইয়া রহিল। অনেকক্ষণ তাহাদের চক্ষ যে উপবাসী ছিল! দয়া বলিল—“দেখ, আজ আমার মনটা কেমন হয়ে গেছে। খোকা এখনও এল না। কি জানি কেন মনটা এমন হয়ে গেল।” উমাপ্রসাদ বলিল—“এখনও খোকার আসবার সময় হয়নি। যে দিন ঘুমিয়ে পড়ে সে দিন ত আসতে দেরীও হয়। তোমার মন সেজন্যে খারাপ হয়নি। কেন হয়েছে আমি জানি।” "কেন বল দেখি ?” “বলেছি কি না আমি পশ্চিমে যাব চাকরি করতে, তাই তোমার মন খারাপ হয়ে গেছে।” —বলিয়া উমাপ্রসাদ সত্রীকে নিজের আরও কাছে টানিয়া লইল। দয়া একটি ছোট দীঘনিঃশ্বাস ফেলিয়া বলিল—“আমি বুঝতে পারছিনে। মনে হচ্ছে যেন আর তোমার সঙ্গে দেখা হবে না।” - , দুলাল দলিলন। পত্নীর কথা শুনিয়া উমাপ্রসাদের মখেখানিও মলান হয়া গেল। অনেকক্ষণ দুইজনে দাঁড়াইয়া রহিল। চাঁদ ডুবিয়া গেল। গাছপালা অন্ধকারে গালিকা দিল। জানালা বন্ধ করিয়া উভয়ে শয্যায় ফিরিয়া আসিল। কু: ক ক ল নােলে পরস্পরের বক্ষেনিবন্ধ হইয়া তাহারা ধনমাইঃ l ক্ৰমে জানালার রন্ধ্রুপথে প্রভাতের আলোকরশ্মি প্রবেশ করিতে লাগিল। তখনও দুইজনে ভভূত। সহসা বাহির হইতে উমাপ্রসাদের পিতা ডাকিলেন–“উমা”। প্রথমে ঘুম ভাঙ্গিল দয়ার। সে গা ঠেলিয়া স্বামীকে জগোইয়া দিল। কালীকিংকর আবার ডাকিলেন,—“উমা”। বরটা কপিত, যেন অন্যরাপ ইহা যে তাঁহারই কণ্ঠস্বর তাহা যেন কটে বাঝা গেল। এত ভোরে পিতা ত কখনও, ডাকেন না। আর তাঁহার সবরই বা এমন হইল কেন ?— তবে সত্য সতাই খোকার কিছু অসুখ বিসখ করিয়াছে বঝি ! উমাপ্রসাদ তাড়াতাড়ি উঠিয়া দয়ার খলিয়া দিল। দেখিল পিতর পরিধানে রক্তবর্ণ কৌষেয় বস্ত্র, কন্ধে নামাবলী উত্তরীয়, গলে রদ্রাক্ষমাল্য লম্বমান। এ কি! এত ভোরে তাঁহার প্রজার বেশ কেন ? অন্য দিন গঙ্গাস্নান করিয়া আসিয়া তবে তিনি পাজার বেশ পরিধান করেন। মহত্তকালের মধ্যে এই চিন্তাপরম্পরা উমাপ্রসাদের মস্তকে উদিত হইল। দবার খলিবামত্র কালীকিঙ্কর পত্রকে জিজ্ঞাসা করিলেন—“বাবা, ছোটবউমা কোথায় ?” সবর পববং কল্পিত। উমাপ্রসাদ কক্ষের চারিদিকে চাহিল। দয়া শয্যাত্যাগ করিয়া কালীকিঙ্করও সেইদিকে নেত্রপাত করিলেন। বধকে দেখিতে পাইবামার, নিকটবত্তী হইয়া তাহার পদতলে সাটাংগ প্ৰণিপাত করিলেন। - উমাপ্রসাদ বিস্ময়ে বাক্যহীন। দয়াময়ী শবশরের এই অদ্ভুত আচরণ দেখিয়া নিপন্দভাবে দাঁড়াইয়া রহিল। , "- - প্রণামান্তে কালীকিঙ্কর বলিলেন—“মা আমার জন্ম সাথক হল। কিন্তু এতদিন কেন दौल्लन्नीन प्रा ?” উমপ্রসাদ বলিল—“বাবা!” কালীকিংকর বললেন— বাবা ইহাকে প্রণাম কর।” উমাপ্রসাদ বলিল—“বাবা —আপনি কি উন্মাদ হয়েছেন ?” “উন্মাদ হইনি বাবা ; এতদিন উন্মাদ ছিলাম বটে। আজ তারোগলাভ করেছি, সেও মাল কপোয় ।” . tre