পাতা:প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়ের গল্পসমগ্র.djvu/৮৯৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ব্যাপারটা কি, শরং কিছই বুঝিতে পারিল না। তাহার মনে একটা আশঙ্কা জগিয়া উঠিল—তবে কি ইহাদেরই কুকুর নাকি ? টোবিকে কোল হইতে নামাইয়া মহিলাটি মিন্টস্বরে জিজ্ঞাসা করিলেন, “আপনি কি একজন ভারতবষীয় ছাত্র 2" কুকুরটি হারাইবার আশংকায় শরতের মুখ শুকাইয়া গিয়াছিল। ঢোক গিলিয়া বুলিল, “আজ্ঞা হ্যাঁ ।” “কি পড়েন আপনি ?” “আইন পড়ি।” “কোথা ? লিনকন্স ইন ? সেখানে আমার একটি ভাইপোণ্ড পড়ে।” “না, আমি গ্রে’জ ইনে পড়ি।" “বেশ বেশ। কতদিন এ দেশে আছেন ?--আপনাকে এ সব কথা জিজ্ঞাসা করিতেছি বলিয়া আপনি বিরক্ত হইতেছেন না ত?” "না না—বিরক্তির কথা কি ! আমার সম্বন্ধে আপনি জিজ্ঞাস হইয়াছেন ইহা ত আমার গৌরবের বিষয়। আমি এ দেশে আঠারো মাসের উপর আছি।” মহিলাটি কয়েক মহত্ত্বে নীরব রহিলেন। শরৎ ভাবিতে লাগিল, এইবার বোধহয় কুকুরের কথা জিজ্ঞাসা করিবে ! i তাহাই হইল। মহিলাটি জিজ্ঞাসা করিলেন, “আচ্ছা, এ কুকুরটির বয়স কত ?” “তাহা ত ঠিক জানি না ’ বছরখানেকের হইবে বোধ হয়।” “কুকুরটি বেশ শান্ত। আচ্ছা, এটি কি আপনি কিনিয়াছিলেন : না, কোনও বন্ধ, আপনাকে উপহার দিয়াছিলেন ?” শরৎকুমার বঝিল, এইবার সময় উপস্থিত হইয়াছে। মহত্তের জন্য তাহা প্রলোভন হইল-মিথ্যা করিয়া বলি, কিনিয়াছিলাম। আমায় ধরে কে - কিন্তু সে প্রবৃত্তি তাহার হইল না। সে বলিল, “কুকুরটি আমি কুড়াইয়া পাইযাছিলাম।” মেয়েটি এতক্ষণ শরতের সঙ্গে কোনও কথা কহে নাই। এবার আগ্রহের সহিত বলিয়া উঠিল, “কোথায় পাইয়াছিলেন ?” শরৎ গভীরভাবে বলিল, “এইখানেই পাইয়াছিলাম। এই বেঞ্চির উপর পাঁচ মাস হইল, কুকুরটি বসিয়া ছিল। তখন ঝাপ ঝাপ করিয়া বরফ পড়িতেছে। কুকুরটি এই বেষ্টির উপর বসিয়া ছিল, এ অঞ্চলে জনপ্রাণী কেহ ছিল না। আমি কুকুরটিকে বাড়ী লইয়া গিয়াছিলাম—নহিলে এখানেই সেদিন মরিয়া যাইত!” শরৎ নীরব হইল। তাহার নিঃশ্বাস ঘন ঘন পড়িতেছিল। তাহার মনে হইল সে যেন চৌষাপরাধে অভিযুক্ত—আদালতে জবাব দিতেছে। মেয়েটি ও তাহার মাতা অর্থপণ দটি বিনিময় করিলেন। শরৎ তখন তাড়াতাড়ি বলিল, “আমি উহাকে বাড়া লইয়া গিয়া, আগনের কাছে রাখিয়া, খাবার দিয়া উহার প্রাণ বাঁচাইলাম। পরদিন ডেলি টেলিগ্রাফ সংবাদপত্রে বিজ্ঞাপন দিলাম। তিন দিন উপযর্ন্যপরি সে বিজ্ঞাপন বাহির হইয়াছিল, অনেকে চিঠি পাঠাইয়াছিলেন, কিন্তু যাঁহার কুকুর তাঁহার কোন সন্ধান পাইলাম না।” শরৎকুমারের মুখে তখন ফ্যাকাশে হইয়া গিয়াছে। বন্ধ তাহাঁর মুখের পানে কয়েক মহত্ত চাহিয়া থাকিয় বলিলেন, “কুকুরের গলায় কলার ছিল না, নয় ?” শরৎ বলিল, “না। কলারে যদি কুকুরের মালিকের নাম ঠিকানা লেখা থাকিত, তাহা হইলে কাগজে আমায় বিজ্ঞাপন দিতে হইত না।” মেয়েটি বলিল, “কুকুর শিকলে বাঁধা ছিল। কলার একটা ঢিলা ছিল। মাথা গলাইয়া পলায়ন করে।” শরৎ বলিল, “কুকুর কি আপনার ?” মহিলাটি বলিল, “হাঁ । ఇFF কুকুর। শুধ চেহারা দেখিয়া আমি মনে