পাতা:প্রাচীন বাঙ্গলা সাহিত্যে মুসলমানের অবদান.djvu/১৩৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


> ネ8 প্রাচীন বাঙ্গলা সাহিতো মুসলমানের অবদান আয়রা বিবি মনসুরকে দেখিয় সে রাত্রে ভয় পাইয়াছিলেন, তাহাতে তাহার কঠিন পীড়া হইল এবং স্বামী ফিরিয়া আসিবার পূর্বেই মৃত্যুমুখে পতিত হইলেন । যথাবিহিতরূপে তাহাকে কবর দেওয়া হইল— “গহিন রাইতে ঝি-ঝি ডাকে, অন্ধকার ঘোর । ময়দানে চলিয়া আইল সেইন কাফন-চোর ॥ আর কেহ নাইঙ্কো তার, সঙ্গে কেহ নাই । খন্তা-কোদাল লইয়ারে আইস্তে গোর খড়িবার লাই। সেই দিনের মাইর খাইয়। বুকে পিঠে ধরা। তবুও আসকের টানে আইস্তে কাফন-চোর। " প্রেমিকই বটে ! “কবর খড়িয়া মলম্বর দেখিবারে পায়। বেহেস্তের পরী যেন সুখে নিদ্রা যায় ॥” আয়ুরার গায়ে হাত দিতেই মনুস্থর সহসা চমকিয়া উঠিল। মৃতদেহ যেন নড়িয় চড়িয়া উঠিল। কে যেন অদৃশু-করে তাহাকে বিষম প্রহার করিল। সে অজ্ঞান হইয় পড়িয় স্বপ্নে দেখিল—আয়রা বিবি কবর ছাড়িয়া সম্মুখে দাড়াইয়। বলিতেছেন—“ছিঃ এই পাপের পথ ছাড়িয়া দাও, ভাল হও, আর ডাকাতি করিও না ।” মনসুর যেন বলিল—“ডাকাতি না করিলে আমার জীবিকা নির্বাহ হইবে কিসে?” স্বপ্ন-দৃষ্ট আয়রা বিবি বলিলেন—“যদি ডাকাতি ন-ই ছাড়িতে পার, তবে আমার কাছে শপথ কর যে, দিনে পাঁচবার ঠিক সময়ে নামাজ পড়িবে।” মনম্বর আয়রার পায়ে ধরিয়া শপথ করিল। সেই হইতে মনস্থর পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়ে, কিন্তু ডাকাতির দিকে আর মন নাই। কয়েকদিন গেল, তাহার দলের লোকের আসিয়া বলিল —“সদার, তুমি সাধু হইলে আমাদের চলিবে কিসে? সেইদিন মার