পাতা:প্রাচীন বাঙ্গলা সাহিত্যে মুসলমানের অবদান.djvu/১৭২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্রাচীন বাঙ্গলা সাহিত্যে মুসলমানের অবদান Y ჯჯე, মদিন মারলে দুলালের অনুতাপ এইবারে জলিয়| উঠিল— বিদায় দিয়া সুরুজেরে চিন্তয়ে দুলাল কলিজার লৌ আমার সুরুজ জামাল। কি কইবে মদিন বিবি শুনি মোর কথা দুঃখ সে পাইল তারে দিলে কত ব্যথা । সে নাকি পরাণ দিয়া কিম্ভাছিল মোরে ফাকি দিয়া কোন পরাণে আইলাম তারে ছাইরে। দুঃখের দোসর বিবি আমার যে জগন তারে ছাড়াছি আমার কেমন পরাণ । ভার বাপে দুঃখের দিন আশ্রয় দিল মোরে সুখের লাগিয়া বেয়া দিয়াছিল তারে। আমার পানে চাইয়া দিছিল বাড়ীঘর যত ভাব্যগছিল মনে আমি সুখ দিবাম কত । সেইন মদিনারে আমি দিলাম বড় দাগ মরিলে দোজখে হায়রে আমার হইব জায়গা । এই না ভাবিয়া দুলাল কোন কাম করে না জানায় আলাল ভাইরে না জানায় স্ত্রীরে। ঘর থলে বাহির হইয়া পন্থে দিল মেলা লোকলস্কর নাই সে চলিল একেলা।” পণে যাইতে যাইতে মাথার উপর কর্কশ কাকের ক-ক’ শব্দ শুনিল, একটা গাভীন-শেয়ালী ডাইন দিকদিয়া চলিয়া গেল, দুলাল দুলক্ষণ দেখিয়৷ উৎকণ্ঠিত হইয়া চলিতে লাগিল । এই ত গ্রামের পথ, সে বাড়ীর কাছে আসিয়া পড়িয়াছে ; একি ! মদিনার এত যত্নের এত আদরের গাইটা পথে হাটিয়৷ বেড়াইতেছে । ঘাস নাই পানি নাই ডাকে ঘন ঘন ।”