পাতা:প্রায়শ্চিত্ত ১৯২০ - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৮০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


to o প্রায়শ্চিত্ত বসন্ত রায়। সীতারাম, কী হয়েছে সব বল বল, আমার প্রাণ বড়ো অধীর হচ্ছে। আমার দাদার— সীতারাম। নিবেদন করছি মহারাজ ! যুবরাজকে আমাদের মহারাজ কারাদণ্ড দিয়েছেন । বসন্ত রায় । কারাদও ! সে কী কথা ! কেন, উদয় কী অপরাধ করেছিল ? সীতারাম। সে তো আমরা কিছু বুঝতে পারলুম না। হঠাৎ একদিন শুনলুম যুবরাজ বন্দী। বসন্ত রায়। অঁ্যা ! বন্দী ! সীতারাম। আজ্ঞা হা, মহারাজ ! বসন্ত রায় । সীতারাম, এ কী কথা ! তাকে কি একেবারে জেলখানায় ফোঁজ-পাহারায় বন্ধ করে রেখেছে ? সীতারাম । আজ্ঞে হা মহারাজ ! বসন্ত রায়। তাকে কি একবার বেরোতেও দেয় না ? সীতারাম। আজ্ঞা না । বসন্ত রায় । সে একলা কারাগারে । সীতারাম। হা মহারাজ । বসন্ত রায়। প্রতাপ আমাকে বন্দী করুক-না— আমি আপনি গিয়ে शंनि। ििच्छ् । সীতারাম। তাতে কোনো ফল হবে না । বসন্ত রায়। কিন্তু, কী হবে সীতারাম ! কী করা যায় ? সীতারাম। আমার মাথায় একটা মতলব এসেছে । আপনাকে যেতে হচ্ছে। একবার যশোরে চলুন। বসন্ত রায় । সে তো যাবই। একবার তো প্রতাপকে বলে কয়ে চেষ্টা করে দেখতেই হবে।