পাতা:প্রায়শ্চিত্ত ১৯২০ - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্রায়শ্চিত্ত જે তোমাকে রাজার ছেলে করে পাঠিয়েছেন, সে কথা বুঝি অমন করে উড়িয়ে দিতে আছে ? নাহয় দুঃখই পেতে হবে— তা বলে— উদয়াদিত্য। আমি দুঃখের পরোয়া রাখি নে । তুমি আমার ঘরে এসেছ, তোমাকে সুখী করতে পারি নে, আমার পৌরুষে সেই ধিকৃকার বাজে । স্বরম। যে স্বখ দিয়েছ তাই যেন জন্ম-জন্মান্তর পাই । উদয়াদিত্য । সুখ যদি পেয়ে থাক তো সে নিজের গুণে, আমার শক্তিতে নয়। এ ঘরে আমার আদর নেই বলে তোমারও যে অপমান ঘটে । এমন-কি, মাও যে তোমাকে অবজ্ঞা করেন । সুরমা ! আমার সব সম্মান যে তোমার প্রেমে, সে তো কেউ কাড়তে পারে নি । উদয়াদিত্য । তোমার পিতা শ্ৰীপুররাজ কিনা যশোরের অধীনতা স্বীকার করেন না— সেই হয়েছে তোমার অপরাধ, মহারাজ তোমার উপরে রাগ দেখিয়ে তার শোধ তুলতে চান । নেপথ্যে । দাদা, দাদা ! উদয়াদিত্য ও কে ও ! বিভা বুঝি ! ( দ্বার খুলিয় ) কী বিভা ! কী হয়েছে ? এত রাত্রে কেন ? " বিভা । (চুপিচুপি কিছু বলিয়া সরোদনে ) দাদা, কী হবে ? উদয়াদিত্য । ভয় নেই, আমি যাচ্ছি। বিভা। না না, তুমি যেয়ে না। উদয়াদিত্য । কেন বিভা ? বিভা। বাবা যদি জানতে পারেন ? উদয়াদিত্য। জানতে পারবেন না তে কী ! তাই বলে বসে থাকব ? বিভা । যদি রাগ করেন ? স্বরম। ছি ৰিভা, এখন সে কথা কি ভাববার সময় ?