পাতা:ফাল্গুনী - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/২২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


योङ्खनौ של নয়, যারা অপৰ্যাপ্ত প্রাণকে বুকের মধ্যে পেয়েচে বলেই জগতের কিছুতে যাদের উপেক্ষা নেই, জয় করে তারা, ত্যাগ করেও তা’রাই, বঁাচতে জানে তা’রা, মরতেও জানে তা’র, তা’র জোরের সঙ্গে দুঃখ পায়, তা’র জোরের সঙ্গে দুঃখ দূর করে,—স্থষ্টি করে তারাই, কেন না তাদের মন্ত্র আনন্দের মন্ত্র, সব চেয়ে বড় বৈরাগ্যের মন্ত্র ! . ওহে কবি, তাহলে তুমি আমাকে কি করতে বল ? উঠতে বলি, মহারাজ, চলতে বলি ! ঐ যে কান্না, ওযে প্রাণের কাছে প্রাণের আহবান । কিছু করতে পারব কি না সে পরের কথা—কিন্তু ডাক শুনে যদি ভিতরে সাড়া না দেয়, প্রাণ যদি না তুলে ওঠে তবে অকৰ্ত্তব্য হ’ল বলে ভাবনা নয়, তবে ভাবনা মরেচি বলে’ ! ū; কিন্তু মরবই যে, কবিশেখর, আজ হোক আর কাল হোক । 鸭 কে বল্লে মহারাজ, মিথ্যা কথা! যখন দেখচি বেঁচে আছি, তখন জানচি ৰে বাচবই ;–য়ে আপনাৱ সেই বঁাচাটাকে সৰ দিক থেকে যাচাই করে