পাতা:ফিরিঙ্গি-বণিক্.djvu/১১৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


S ቁ 89 ফিরিঙ্গি বণিক খৃষ্টান মুসলমান-রক্ষাৰ্থ বদ্ধপরিকর। ; এইরূপে ইউরোপের খৃষ্টানগণ দুই দলে বিভক্ত হইয়া পড়িলেন । উভয় দলই তখন পৰ্য্যন্ত পোপের শাসনক্ষমতা শিরোধাৰ্য্য করিাতেন । উভয় দলের কথাই পোপেরু কৰ্ণগোচর হইল । পোপ বিচলিত হইয়া উঠিলেন। পর্তুগালের অধীশ্বর বিচলিত হইলেন না। পোপ। সকল সমাচার জানিতেন না বলিয়া বিচলিত হইলেন। পর্তুগালের অধীশ্বর সকল সমাচার জানিতেন বলিয়াই কিছুমাত্র বিচলিত হইলেন না। তখনও ইউরোপ হইতে মুসলমানাতঙ্ক সম্পূর্ণরূপে নিরস্ত হয় নাই। আরব দেশের মরুমরীচিকায় জন্মগ্রহণ করিয়া, যে মহাশক্তি বিশ্ববিজয়ে বহির্গত হইয়াছিল, রোমক সাম্রাজ্যের অনেক প্রধান স্থান তাহার করাতলগত হইয়া পড়িয়াছিল। খৃষ্টানগণ অকাতপ্নে আত্মবিসৰ্জন করিয়াও প্যালোষ্টিন ও ইউরোপীয় তুকিস্থান হইতে মুসলমানকে বিতাড়িত করিতে পারেন নাই । তখন মিশর ও আফ্রিকার অন্যান্য সম্পন্ন জনপদ মুসলমানের অধিকারভুক্ত। তখন স্পেন-পর্তুগাল মুসলমানের কবলমুক্ত হইলেও, আতঙ্কশূন্য হয় নাই। এরূপ সময়ে মিশরের মুসলমান সুলতান পোপকে তজ্জন গর্জন করিয়া লিখিয়া পাঠাইলেন,-“পৰ্ত্তগালকে শাসন না করিলে, সুলতান খৃষ্টান-জন্মস্থানের পবিত্র মন্দির ধূলিসাৎ করিবেন ; খৃষ্টানগণকে নিহত করিয়া প্ৰতিহিংসাবৃত্তি চরিতার্থ করিতে বাধ্য হইবেন।” ভিনিসীয় খৃষ্টানগণও পোপকে ভয় প্রদর্শন করিতে ক্ৰটি করিলেন না। পোপ বিচলিত হইবামাত্র পর্তুগালের অধীশ্বর তাহাকে বিনীতভাবে বুঝাইয়া দিলেন,-“ভার ৩-বাণিজ্য ব্যপদেশমাত্র ; সত্য-ধৰ্ম্ম প্রচারিত করাই প্ৰকৃত উদ্দেশ্য ;-তাহ সুসিদ্ধ হইবার উপক্রম হইয়াছে।” পোপ আশ্বস্তু হইলেন। পর্তুগালের বাহুবল উচ্ছঙ্খল হইয়া উঠিল। ইউরোপ ছাড়িয়া মুসলমান- খৃষ্টানের সমরকোলাহল এসিয়ার সমুদ্রোপকূল মুখরিত করিয়া তুলিল।