পাতা:ফিরিঙ্গি-বণিক্.djvu/১৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ফিরিঙ্গি বণিক বিবিধ “বন্দর” পৰ্যন্ত বিস্তৃতিলাভ করিয়াছিল। ইহার দুই শাখাই ইতিহাসে প্রসিদ্ধিলাভ করিয়াছে। এক শাখা পারস্যোপসাগরে, অপর শাখা লোহিত্যসাগরে প্রধাবিত হইত। পারস্যোপসাগরের শাখা কালুদীয়-রাজ্যে উপনীত হইয়া, স্থলপথের সহিত মিলিত হইত ; লোহিতসাগরের শাখা মিশর-রাজ্যে উপনীত হইয়া স্থলপথের সহিত মিলিত হইত। এই দুই জল-বাণিজ্যপথ যথাক্ৰমে “কালিদীয় পথ” ও “মিশরীয় পথ” নামে অভিহিত হইতে পারে । * স্থলপথের ন্যায় জলপথেও অন্যান্য দেশের নাবিক বৰ্গ ভারতীয় বাণিজ্য-ভাণ্ডার বহন করিয়া অর্থে পাৰ্জন করিত। জল স্থল উভয় পথেরই এক লক্ষ্য-প্ৰাচ্য রাজ্যের পণ্যবিনিময়ে প্রতীচ্যে রাজ্যের ধনাহরণ । এই লক্ষ্য দীর্ঘকাল ভারতবর্ষের সৌভাগ্যবৰ্দ্ধন করিয়া, ভারতবর্ষের নাম জগদ্বিখ্যাত করিয়া তুলিয়াछ् ि। সুদূর পাশ্চাত্য জনপদে ভারতীয় শিল্প সকল সময়ে ভারতবর্ষের BD BBB BBDB D SS DD Su BD DBDBDB DBDD BDLD DBDDBuDB BDBDBS তাহার নামেই পরিচিত হইত। এক্ষণে যে রক্তবস্ত্ৰ “টর্কি রোেন্ড” নামে পরিচিত, এক সময়ে তাহা “এড়িানোপোলিস রেড” নামে পরিচিত ছিল । অথচ তাহা ভারতবর্ষে সুরঞ্জিত হইয়াই পাশ্চাত্য জনপদে বিক্রয়ার্থ প্রেরিত হইত। অনেক প্ৰতীচ্য রাজ্যের পুরাতন সাহিত্যে ভারতবর্ষের নাম উল্লিখিত না থাকি বার প্রকৃত কারণ কি, এই একটিমাত্র দৃষ্টান্ত হইতেই তাহা বুবি তে পারা যায়। হোমরের অমর কাব্যে ভারতবর্ষের নাম উল্লিখিত না থাকায়, অনেক পাশ্চাত্য-লেখক হোমরের তিরোধানের পর ভারত-বাণিজ্য বিস্তৃত হইয়াছিল, এই কথা লিপিবদ্ধ

  • এতদ্ব্যতীত আর একটি জল পৰ্থ ‘সিংহলপথ” নামে কথিত হইতে পারে। এই পথে বঙ্গদেশের পণ্যভাণ্ডার সিংহলে প্রেরিত হইয়া, তথা হইতে আবার “কালিদীয় YDS sE S StDiD BB BDS sBLBD DuBDB DS