পাতা:ফিরিঙ্গি-বণিক্.djvu/১৬৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্ৰতিদ্বন্দী >も。 ছিল না। সে পথে স্পেন-পর্তুগালের অগ্রসর হইবার অধিকার ছিল না। সুতরাং ইউরোপের অন্যান্য উদ্যমশীল খৃষ্টান-সমাজ পূর্ব-দক্ষিণ ও পশ্চিম-দক্ষিণ সমুদ্রপথ পরিত্যাগ করিয়া, উত্তর-পূর্ব ও উত্তর-পশ্চিম সমুদ্রপথেই ধাবিত হইতে আরম্ভ করিয়াছিল। এই দুইটি অবারিত সমুদ্রপথে ভারতবর্ষে উপনীত হইয়া, ভারত-বাণিজ্যে লাভবান হইবার আশায়, ওলন্দাজ, ফরাসী এবং ইংরেজ অধ্যবসায়ের পরাকাষ্ঠী প্ৰদৰ্শন করিতেছিল । পুনঃ পুনঃ প্ৰতারিত হইয়াও, পুনঃ পুনঃ বিজয়লাভের লুব্ধাশ্বাসে এই সকল উদ্যমশীল জাতি অকাতরে জীবন বিসর্জন করিতেছিল;-একদল পরাভূত হইবামাত্র, অন্যদল ছুটিয়া বাহির হইতেছিল ! ভিনিসীয় বণিকৃগণ প্ৰাচ্য বাণিজ্যের চিরপরিচিত পুরাতন পথ পরিত্যাগ করিয়া, অভিনব পথের আবিষ্কার সাধনের জন্য কিছুমাত্ৰ ব্যাকুলত প্ৰকাশিত করে নাই। তাহারা লোহিত সাগরের পথে ভারত-বাণিজ্যে অধিকার লাভের আশায়, খ্ৰীষ্টান হইয়াও মিশরের মুসলমান সুলতানের সহিত যোগদান করিয়া, পর্তুগীজগণের অনিষ্ট সাধনের চেষ্টা করিতেছিল । সে চেষ্টা সফল হয় নাই ; কিন্তু তাহার জন্য সময়ে সময়ে ভিনিসীয়গণের বিরুদ্ধে পোপের নিকট অভিযোগ উপস্থিত হইতেছিল । ভিনিসীয়-মিসরীয় চক্রান্তে যে ফিরিঙ্গি-বণিকের প্রকৃত আশঙ্কার কারণ বৰ্ত্তমান ছিল না, তাহা সকলকেই স্বীকার করিতে হইয়াছিল । যতদিন ইউরোপীয় খৃষ্টান-সমাজে খৃষ্টধৰ্ম্মাচাৰ্য্যের শাসনলিপির মৰ্য্যাদা অক্ষুন্ন ছিল, ততদিন অন্য কোনও খৃষ্টান প্রতিদ্বন্দ্বীর পক্ষে ভারত-বাণিজ্যে অধিকার বিস্তৃত করিবার কোনরূপ সম্ভাবনা বর্তমান ছিল না । কেবল স্পেনের পক্ষে ক্রমাগত পশ্চিমাভিমুখে পোতচালনা করিতে করিতে ভারতবর্ষে উপনীত হইবার যে সম্ভাবনা ছিল, তাহ