পাতা:ফিরিঙ্গি-বণিক্.djvu/১৮৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্ৰবল সংঘর্ষ Sዓt বিমুক্ত মানবচিত্ত আধ্যাত্মিক দাসত্বশৃঙ্খল ভগ্ন করিয়া, স্বাধীন চিন্তার, স্বাধীন কাৰ্য্যের মুক্তক্ষেত্রে বিচরণ করিতে আরম্ভ করিল। স্পেনরাজ্যের অধীশ্বর পোপের শাসনক্ষমতা অক্ষুদ্র রাখিবার অভিপ্ৰায়ে অনুদার স্থিতিশীলদলের পক্ষাবলম্বন করায়, গতিশীলদলের সহিত তাহার কলহ উপস্থিত হইয়াছিল। ‘আরম্যাডা’-সাহায্যে ইংলণ্ডবিজয়ের সুখস্বপ্ন ভাঙ্গিয়া গেল। সঙ্গে সঙ্গে ইংরাজ আত্মশক্তি বিকাশে প্ৰবল হইয়া উঠিতে লাগি'ল। স্পেন-পর্তুগালের সহিত ইংলেণ্ডের মিত্ৰত বৰ্ত্তমান থাকিতে, ইংলণ্ডের পক্ষে স্বাধীনভাবে ভারত-বাণিজ্যে অগ্রসর হইবার উপায় ছিল না । জনসমাজ যখনই সেরূপ অধিকার পরিচালনার জন্য রাজানুমোদন ভিক্ষা করিত, ইংলণ্ডের অধিপতিকে মিত্ৰতারক্ষার্থ তখনই প্ৰজাবৰ্গকে বিমুখ করিতে হইত। তৎকালে অনন্যেপায় হইয়া ইংরাজগণ কেবল পরোক্ষভাবে ভারত-বাণিজ্যের ফললাভের জন্য চেষ্টা করিয়াই নিরস্ত হইতে বাধ্য হইতেন । ভারতবর্ষ হইতে যে পণ্যদ্রব্য ইউরোপে আনীত হইত, তাহা প্ৰথমে লিসবন নগরে, পরে তথা হইতে হলান্তের অন্তর্গত আন্টোয়াপ নগরে বিক্রয়ার্থ পুঞ্জীকৃত হইত। ইংরাজেরা আন্টোয়ার্প হইতে পণ্য ক্ৰিয় করিয়া স্বদেশে বিক্রয় করিতেন । ইহাতে ভারত-বাণিজ্যের প্রধান লাভ পর্তুগালের করতলগত থাকিত,-ওলন্দাজগণ যাহা কিছু লাভ প্ৰাপ্ত হইতেন, তাহা আন্টোয়াপের যেরূপ ভাগ্যোন্নতি সাধিত হইয়াছিল, তাহা সমগ্ৰ ইউরোপকে বিস্মিত করিয়া তুলিয়াছিল। ভারতীয় পণ্যদ্রব্যের ক্রয়বিক্রর ব্যাপারেই আন্টোয়ার্প ইউরোপে বাণিজ্যবন্দরগুলির শীর্ষস্থানে আরূঢ় হইয়াছিল। ইংলণ্ড একটি ক্ষুদ্র দ্বীপ। পৃথিবীতে সেরূপ ক্ষুদ্রদ্বীপের অভাব নাই । দেশের আয়তনের প্রতি লক্ষ্য করিলে, তাহাকে নিতান্ত নগণ্য বলিলে অত্যুক্তি হয় না। রোমক সাম্রাজ্যের অন্তৰ্ভুক্ত থাকিবার সময়ে ইংলণ্ড সত্যসত্যই নগণ্য ছিল। সে দেশের লোকের পক্ষে অত্যুদয় লাভ করা