পাতা:ফিরিঙ্গি-বণিক্.djvu/৩৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পুরাতন পুণ্যপথ RGr স্থলপথের আশা একেবারে পরিত্যক্ত হয় নাই। ইউরোপ অদ্যাপি সে আশা ত্যাগ করিতে পারে নাই। রুসিয়া যে সুদীর্ঘ লৌহবত্মে এসিয়ার সহিত ইউরোপকে সংযুক্ত করিবার আয়োজন করিতেছে, তাহার অধিকাংশ কেবল পুরাতন স্থল-বাণিজ্যপথের ভারত-সৌভাগ্যচরণাঙ্কিত সুপরিচিত পুণ্যপথ । সেই পথে বৌদ্ধ শ্ৰমণ জগন্তু মণে বহির্গত হইয়া, বণিশ্বর্গের আশ্রয়ে দেশ হইতে দেশান্তরে মুক্তিমন্ত্র প্রচারিত করিতেন । তাহার উভয় পার্শ্বে অদ্যাপি যে সকল পুরাকীৰ্ত্তি ভস্মাচ্ছন্ন হইয়া বৌদ্ধবিজয়ের ধারাবাহিক ইতিহাস-সুত্ৰ বিচ্ছিন্ন করিয়া রাখিয়াছে, তাহা পুনরায় আবিষ্কৃত ও আলোচিত হইতেছে । তাহাকে এসিয়ার পুরাতন পুণ্যপথ ভিন্ন কি বলিব ? যে পথে গমনাগমনকালে এসিয়া বাসিগণ। পৃথিবীর ইতিহাসে শৌৰ্য্যবীৰ্য্য-জ্ঞানবৈরাগ্য-শিল্পবিজ্ঞান-গৌরবে পরাক্রাস্ত হইয়া, ইতিহাসে অমরত্ব লাভ করিয়াছে, তাহা এসিয়ার পুরাতন পুণ্যপথ । সে পথের পার্শ্বে এসিয়ার অতীত-গৌরব অদ্যাপি যেন ছায়া कवद ९3भूभम ! ইউরোপ যখন জলপথে ভারতবর্ষে উপনীত হইবার সৌভাগ্য লাভ রে, সেদিন ভারতবর্ষে পদার্পণ করিয়া ইউরোপীয়গণ দেখিয়াছিল, -স্থলপথে তাহদের কোন কোন স্বদেশী পৰ্য্যটক বহু পূর্বেই ভারতবর্ষে উপনীত হইয়াছে ! যাহারা মিশরীয়-পথে অগ্রসর হইয়াছিল, তাহারাও সহসা অধ্যবসায় পরিত্যাগ করে নাই । জলপথ আবিস্কৃত হইবার পর, প্ৰয়োজনের অভাবেই, স্থল-বাণিজ্যপথের সন্ধান- চেষ্টা ক্ৰমে ক্ৰমে পরিত্যক্ত হইয়াছিল । মধ্যযুগের ইউরোপীয় জনসমাজ ভূমণ্ডলের বিবিধ অবিজ্ঞাত প্ৰদেশ আবিষ্কৃত করিবার জন্য লালায়িত হইবার কথা ইতিহাসে সুপরিচিত হইয়া রহিয়াছে। কিন্তু তাহাকে প্রকৃত প্ৰস্তাবে কোন অবিজ্ঞাত নূতন দেশের আবিষ্কার কামনা বলিয়া বৰ্ণনা করা যায় না । তাহা কেবল চির-পরিচিত