পাতা:ফুলমণি ও করুণার বিবরণ.djvu/২১৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


হসম্ব সাহেব, আমি ভোরে উঠিয়া ঘর বর্ণটি দিয়া সকল দুব সুন্দরন্ধপে পরিষ্কার করিয়া রাখিয়াছিলাম, তাহাতে বোধ করিলাম, যে নবীনের বাপ তারা সন্তুষ্ট হইবে ; কিন্তু তাহার এইকপ কঠিন বাক্য শুনিয়। আমি কিছু রাগন্বিতা ইয়া তাহাকে ভৰ্গুসন করিবার মানস রিতেছিলাম, এমত সময়ে আপনকার উপদেশ আমার স্মরণ হইল, তাতাতে আমি কিছু না বলিয়া চুপ করির রছিলাম। পরে সে পুষ্করিণীহইতে ফিরিয়া আইলে আমি একটা মাজুর দাবায় বিছাইয়। তাছাকে ইলিস মাছের ব্যঞ্জন ও ভাল আয় ও ভাত অানিয়; দিলাম । সে তাহা দেখিয়া বড় আশ্চর্য জ্ঞান করিয়া কছিল, কৰুণা, আজি কি হইয়াছে, তাহ কিছু বুঝিতে পারিতেছি না । এমত ভাল খাওয়া তিন মাস পৰ্য্যন্ত পাই নাই s এই সকল আয়োজন কেম করিলা ? এব০ কোথায় বা পাইলা ? তখন আমি কহিলাম, কেবল তোমাকে সন্তুষ্ট করিবার জন্যে এই সকল পুস্তুত করিয়াছি। এই কথাতে সে আমার মুখ পানে চাহিয়া আরো চমৎকৃত হইয়। কহিল, তুমি তো একেবারে নূতন মানুষ হই য়াছ ! এমন স্বভাব যদি তোমার বরাবর থাকে,