পাতা:বঙ্কিমচন্দ্রের উপন্যাস গ্রন্থাবলী (দ্বিতীয় ভাগ).djvu/১৯৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

সীতারাম দশম পরিচ্ছেদ গঙ্গারাম ফৌজদারের সঙ্গে নিভৃতে সাক্ষাৎ করি লেন। ফৌজদার তাহাকে কোন প্রকার ভয় দেখাইল না। কাজের কথা সব ঠিক হুইল । ফৌজ দারের সৈন্ত মহম্মদপুরের দুর্গদ্বারে উপস্থিত হইলে, গঙ্গারাম দুৰ্গদ্বার খুলিয়া দিতে স্বীকৃত ইষ্টলেন । কিন্তু ফৌজদার বলিলেন, “দুৰ্গদ্বারে পেীড়ি আমাদের দুর্গদার গুলির দিব ? এখন মুলামের ষ্ঠাবে অনেক সিপাহী আছে । পথিমধেী, বিশে4 পারের সময়ে তাহার। যুদ্ধ করিলে, উঠাই সস্থল । যুদ্ধে জয়-পরাজয় আছে । যদি সূদ্ধে আমাদের স্বপ্ন হয়, তবে তোমার সাহাষা বা তা ত ও অমর &র্ণ অধিকার করিতে পারি । মদি পরাজয় হয়, তোমার সাহাষে। আমাদের কোন উপকার হইবে ন। তার কি পরামর্শ করিয়াছ ?” গঙ্গ। ভূষণ হইতে মহম্মদপুর স্বাক্টবর সৃষ্ট পথ আছে ৷ এক উত্তর-পথ, এক দক্ষিণ-পথ । দক্ষিণ-পসে দূরে নদী পার হঠতে হয় । উত্তরপথে কিল্লার সম্মুথেষ্ট পার হইতে হয় । আপনি মহম্মদপুর আক্রমণ করিতে দক্ষিণ-পথে সেন। লষ্টয়া সাইলেন । মৃন্ময় তাঙ্গ। বিশ্বাস করিবে, কেন না, কিল্লার সম্মুখে নদীপর ত গুর। কঠিন ব| অসম্ভব । অতএব সে-ও সৈন্য লষ্টয়। দক্ষিণ-পথে আপনার সঙ্গে যুদ্ধ করিতে যাইবে । আপনি সেই সময়ে উত্তর পথে সৈন্য লইয়। কিল্লার সম্মুখে নদপার ছলে ত তুমি তপে হইবেন । তখন গুৰ্গে সৈন্স পকিবে ন৷ ব৷ অল্পষ্ট থাকিবে । অতএব আপনি অনারাসে মদীপ র হইয়! খোল পথে ব্লগের ভিতর প্রবেশ করিতে পরিবেন । ফৌজদার । কিন্তু যদি মৃন্ময় দক্ষিণ-পথে সাঙ্গতে যাইতে শুনিতে পায় যে, আমর। উত্তর-পথে সৈন্ত লষ্টয়! মইতেছি, তবে সে পথ হইতে ফিরিতে পারে । গঙ্গারাম । আপনি অৰ্দ্ধেক সৈন্) দক্ষিণ-পপে, অৰ্দ্ধেক সৈন্ত উত্তর-পথে পাঠাইবেন । উত্তর-পথে থে সৈঙ্গ পাঠাইবেন, পূৰ্ব্বে যেন তাহ কেহ ন জানিতে পারে। ঐ সৈঙ্গ রাত্রিতে রওয়ান করিয়। নদীতীর ইষ্টতে কিছু দূরে বনজঙ্গলমধ্যে লুকাইয়। রাখিলে ভাল হয় । তার পর মৃন্ময় ফৌজ লইয়। কিছু দূরে গেলে পর নদী পার হইলেই নিৰ্ব্বিল্প হইবেন । মৃন্ময়ের সৈন্যও উত্তর দক্ষিণ দুই পথের সৈন্তের মাঝখানে পড়িয়া নষ্ট হইবে । ফৌজদায় পরামর্শ শুনিয়া সন্তুষ্ট ও সন্মত হইলেন । বলিলেন, “উত্তম । তুমি আমাদিগের মঙ্গলাকাজী ২য়—২৫ S}(t বটে। কোন পুরস্কারের লেভেতেই এরূপ করিতেছ সন্দেহ নাই । কি পুরস্কার তোমার বাঞ্ছিত ?” গঙ্গারাম অভীষ্ট পুরস্কার চাহিলেন—বল বাহুল্য .ল, সে পুরস্কার রমা । - সন্তুষ্ট চট্ট গঙ্গারাম বিদায় হইল এবং সেই , রাত্ৰিতে মহম্মদপুরে স্টিরিয়! আসিল । গঙ্গ; রাধ জমি ৩ ন! মে, চাদশাহ ফকীর তাঁহার ; অসুব গু হইয়াছিল । একাদশ পরিচ্ছেদ সন্ধার পর গুপ্তচর আসিয়৷ চন্দ্র চুড়কে সংবাদ কােজদারী সৈ% দক্ষিণপথে মহম্মদপুর আক্রমণে হ্ৰা: সতেছে । চন্দ্রচূড় তখন মুন্ময় ও গঙ্গারামকে ডাকাইয়া পরামর্শ করি.ত লাগিলেন । পরামর্শে এই স্থির

  • -- ~~ ~ * , "." .

মুন্ম সৈন্স লষ্টয়! সেই রাত্ৰিতে দক্ষিণপথে ন। লা করিপেন-মাহাতে যবন সেনা নদী পার হইতে ন। পরে, এমণ ব্যবস্থা করিলেন । ---ག་བཞེད་ཅ -- হইল দে, ণসজ্জার ধূম পড়িয় গেল । মৃন্ময় ষ্ট প্রস্তুত ছিলেন, তিনি সৈন্য লইয়া দক্ষিণপথে যাত্র। করিলেন । গড়রক্ষার্থ সিপাহী রাখিয় গেলেন । তাহারা গঙ্গারামের অজ্ঞধানে রহিল ! এই সকল সোলমালের সময় পাঠকের কি গরীব রমকে মনে পড়ে ? সকলের কাছে মুসলমানের সৈণ্ঠাগমন বৰ্ত্ত যেমন পৌছিল, রমার কাছেও সেইরূপ পৌছিল । মুরল বলিল, “মহারাণি, এখন । বাপের বাড়া যাওয়ার উদ্যোগ কর।” রম বলিল, “মরিতে হয় এইখানে মরিব, কলঞ্চের পথে যাইব না, কিন্তু তুমি একবার গঙ্গারামের কাছে সাও । আমি মরি, এইখানেই মরিব, কিন্তু আমার ছেলেকে রক্ষা করিতে তিনি স্বীকৃত আছেন, . স্মরণ করাষ্টর দিও । সময়ে আসিয়া যেন রক্ষা করেন । আমার সঙ্গে কিছুতেই আর সাক্ষাৎ হইবে . ন, তাহ ৪ বলিও " রম মন স্থির করিবার জঙ্গ, নন্দার কাছে গিয়া । বসিয়া রহিল । পুরীমধ্যে কেহই সে রাত্রিতে ঘুমাঈল না । 家 * * মুরল। আজ্ঞ। পাইয়। গঙ্গারামের কাছে চলিল, গঙ্গারাম নিশীথকালে গৃহমধ্যে একাকী বসিয়। ** চিন্তায় নিমগ্ন । রত্ন-আশায় সমুদ্রে ঝাপ দিতে