পাতা:বঙ্গদর্শন-প্রথম খন্ড.djvu/১৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


|

उiब्रङवर्ष श्रांबिब्बी यूक कब्रिब्राझिळगम । রচনাকুশলী য়ুনানী লেখকেরা তাহা পরিকীৰ্ত্তিজ করিয়াছেন । দ্বিতীয়, মুসলমামেরা ভারতবর্ম জয়ার্থ মে সকল উদ্যম করিয়া ছিলেন, তাহ মুসলমান ইতিবৃত্ত লেখকের तिङ्कङ कम्रिोप्छन । किङ् अर्थप्थहे रुद्धदा যে এরূপ সাক্ষিত্ৰ পক্ষপাতিত্বের গুরুতর সম্ভাবনা । মনুষ্য চিত্রকর বলিয়াই চিত্রে সিংছ পরাজি ন্ত স্বরূপ লিখিত হয় । যে সকল ইতিহাসবেত্ত আত্মজাতির লাঘব স্বীকার করিয়া সত্যের অনুরোধে শত্রুপক্ষের যশ কীৰ্ত্তন করেন, তাহারা অতি অল্প সংখ্যক । অপেক্ষাকৃত মূঢ়, অস্ত্রগরিমাপরায়ণ মুসলমানদিগের কথা দূরে থাকুক, কতবিদ্য, সত্য-নিষ্ঠাভিমানী ইউরোপীয় ইতিহাসবেত্তারাও এই দোষে এইরূপ কলঙ্কিত যে, তাহদের রচনা পাঠ করিতে কখন কথন ঘৃণা করে । অল্পের কথা দূরে যাউক, এক্ষণে যিনি ফরাসিস রাজ্যেব চুড়া, সেই মহাত্মার লিখিত প্রথম নাপোলেঙ্গনের যুদ্ধবিবরণ এই কথার এক উদাহরণ স্থল। গত ফরাসি-প্রীয় যুদ্ধে ফরাসি লেখকের, যেরূপ যুদ্ধসম্মাদ প্রচার করিতেন, তাহ দ্বিতীয় উদাহরণ স্থল। অন্ত উদাহরণ যাউক, সত্যনিষ্ঠ ইংরাজগণ প্রচাৱিত ভারতবর্ষের ইতিবৃত্ত হইচত এ কথার তুরি ছুরি প্রমাণ পাওয়া যায়। পলাশীর যুদ্ধ, গ্লোরিয়া বিকটরি। যাহারা “সরের মতাক্ষরিণ” নামক পারস্য গ্রন্থ বা তদনুবাদ পাঠ করিয়াছেন.. তাছার জানেন যে ইংরাজের সে তৃণজয় কি প্রকার। ইহার পর চিলিয়ানওয়ালার উল্লেখ না করিলেও হয়। _ 。总 উপর নির্ভর করিয়া, প্রাচীন, ভারত্বধা ങ്ക=ഞ്ഞ=് ਾ ভারত-কলঙ্ক । {वक्रम*+, t०2, s९१> ॥ ষে যে স্থলে মুসলমানদিগের লেখার সঙ্গে ভারতবর্ষীয়দ্বিগের লেখা তুলনা করিবার উপায় আছেঃ সেই সেই স্থলে মুসলমান ইতি হাসবেত্তাদের স্বপক্ষলাদিত্ব পদে পদে প্রমাণু হয়। কর্ণেল টডের প্রণীত রাজস্থান পাঠ করা অনেক স্থানে দেখা যায় যে, মুসলমানেরাই চিরজী নহে। রাজপুতেরা বহুকাল জাহাদিগের সমকক্ষ হইয়া, অনেক বার তাহাদিগকে পরাজিত এবং শাসিত করিয়াছেন । মুসলমান লেখকের সে সকল বৃত্তাস্ত প্রায় ত্যাগ করিয়াছেন। যদি সে সকল | বৃত্তান্তের কোন উল্লেখ করেন, তবে প্রকৃত বৃত্তান্ত গোপন করেন, অথবা অতি সংক্ষেপে সে বিষয় সমাপ করেন। আর যেখানে মুসলমান মার্জারে হিন্দু মুষিকশিপু -তে করিয়াছে, সেখানে সেখঞ্জীরা অনেক কোলাহল করিয়াছেন । এরূপ তর্ক হইতে পারে, যে উভয় পক্ষের কথা যখন পরস্পর-বিরোধী, তখন কোন পক্ষ মিথ্যাবাদী, তাছা কে স্থির করিবে? তত্ত্বত্তরে বলা যাইতে পাবে যে, রাজপুত পক্ষে অনেক অবস্থা-ঘটিত প্রমাণ আছে । কিন্তু সুে সকল বিচারের এস্থানে প্রয়োজন ; নাই । অন্মদারি বিবেচনায় উভয় পক্ষই কিন্ধর অসত্যবাদী হইতে পারে। এই জন্য দেশীয় এবং ৱিপক্ষদেশীয় উভয়ৰিধ ইতিহাসবেত্তাব্লিগের লিপির সাহায্য না পাইলে, কোন ঘটনারই যাঙ্গার্থ নির্ণীত হয়:ুন। কেবল আত্মগরিম-পরবুশ, পর-ধৰ্ম্মৰেী সত্যতীত মুসলমান লেখকদিগের কথার: