পাতা:বঙ্গদর্শন-প্রথম খন্ড.djvu/১৫৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


बक्रवर्णन, झांs, s२१* ) - •রাজাচার্ধ বৃঙ্গাঙ্গল । -se a অনুগ্রশৰে, কর্ণবেধে,চুড়াকরণে বা উপ- নৈমিত্তিক বিবাহে ভাস্থার চাল, কলা নয়নে—অনেক চালকল পাইব, অতএব | পায় না—সুতরাং ইহার দমনই তাহ . তোমরা ৰিবাহ কর । তোমরা সংসার দের উদেশ্য—তাহীদের শিক্ষামতে সরু । ধৰ্ম্মে প্রবৃত্ত হইলে, সর্বদ। ব্রত নিয়মে এ লেই নৈমিত্তিক বিবাহকারীৰে ধরিয়া পূজা পাৰ্ব্বলে, যাগ যজ্ঞে, রত হইবে, । প্রহার করে। কিন্তু বিশেষ চমৎকার এই সুতরাং আমি অনেক চাল কলা পাইব, অতএব তোমঞ্জাবিবাহ কর । বিবাহ কর, কখন এ বিবাহ রহিত করিও না। রহিত কর, তবে - আমার চাল কলার লিশেষ বিস্তু হইলে । তাঙ্গ হইলে এক-২ যদি , চপেটাঘাতে তোমাদের যুগুপাত করিল। সম্মত, তবে পুরোহিত প্রভৃতির ভয়ে মুখ ফুটিতে পারে না । হামি মনুষ্য আমাদের পূর্বলপুরুষদিগেব এই রূপ হা জ্ঞা ।” বোধ হয়, এই শাসনের জন্যই পৌর হি ভবিবাহ কখন রহিত হয় না। . যে অনেকেই গোপনে স্বয়ং নৈমিত্তিক বিবাহ করে, অথচ পরকে নৈমিত্তি ক বিবাহ করিতে দেখিলে ধরিয়া প্রহর করে । ই হাতে আমার বিবেচনা হইতেছে যে, অনেক মনুষ্যই নৈমিত্তিক বিবাহে লয়ে বস কালীন জানি য়। তাfসয়াছি, অনেক উচ্চ শ্রেণীস্থ মনুষের নৈমিত্তিক অfমাদিগের মধ্যে যে বিবাহপ্রথা . প্রচলিত আছে, তাহাকে নৈমিত্তিক বিবাহ বলা যায়। মমুয্যমধ্যে এরূপ বিবাহও সচরাচর প্রচলিত । অনেক মনুষ্য এবং মানুষী, নিত্য নৈমিত্তিক উভয়বিধ বিবাহ করিয়া থাকে। কিন্তু নিত্য নৈমিত্তিক বিবাহে বিশেষ প্রভেদ এই যে, নিত্য বিবাহ কেহ গোপন করে না, নৈমিত্তিক বিবাহ সকলেই প্রাণপণে গোপন করে। যদি একজন মনুষ্য অন্ত মনুষ্যের নৈমিত্তিক বিবাহের কথা জানিতে পারে, তাহা হইলে কখন কখন তাহাকে প্রহার করে। আমার বিবেচনায় পুরোহিতেরাই এই অনর্থের মূল। দিগের স্থায় সুসভ্য, | বিবাহে বিশেষ তাদের । য’;হার তাম তর lং পশুবৃত্ত, তাহারাই এ বিষয়ে আমাদিগের অসুকরণ করিয়া থাকেন। আমার এখনও ভরসা আছে যে,কালে মনুষ্যজাতি তামদিগের স্যায় সুসভ্য হইলে নৈমিত্তিক বিবাহ তাহীদের মধ্যে সমাজসম্মত হইবে। অনেক মনুষ্য পণ্ডিত তৎপক্ষে প্রবৃত্তিদায়ক গ্রন্থাদি লিখিতেছেন । তাহার। স্বজাতিহিতৈষী, সন্দেহ নাই । আমার বিবেচনায়, সন্মান বৰ্দ্ধনার্থ উাহাদিগকে এই ব্রাস্ত্ৰ সমাজের অঁনরারি মেম্বর নিযুক্ত করিলে ভাল হয় । ভরসা করি, উহাৱা সভাস্থ হইলে, আপনার