পাতা:বঙ্গদর্শন-প্রথম খন্ড.djvu/১৬১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


و وی د: ব্যাঘ্ৰচাৰ্য্য বৃহন্নাঙ্গ,ল । शृश्ārन*श्च, वं*:, *२१a। । সভ্যবাদী, তিনি যাহা বলিলেন, তাহার | মধ্যে অধিকাংশ কথা অপ্রাকৃত হইলেও : এই স্ত্রীলোকটিকে জন্মের মত আমার দুই একটা সত্য কথা পাওয়া যায়। প্রভুত্বে নিযুক্ত করিলাম ’’ তিনি অতি সুপণ্ডিত ব্যক্তি। অনেকেই । n i মনে করিতে পারেন যে, এই বক্তৃতার । মধ্যে বক্তব্য কিছুই নাই। কিন্তু আমৰ। যাহা পাইলাম, তাহার ও দ্য কৃতজ্ঞ হওয়া উচিত । তবে বক্তৃতার সকল কথায় সম্মতি প্রকাশ করিতে পারি না । বিশেষ, তাদেী মনুষ্যমধ্যে বিবাহ কাহীকে বলে, বক্তা তাহাই অবগত নহেন। ব্যাঘ্র জাতির কুল রক্ষার্থ যদি কোন বাঘ কোন বাঘিনীকে আপন সহচরী, (সহচরী সঙ্গে চরে ) করে, তাহাকেই আমরা বিবাহ বলি । মলুয্যের বিবাহ সেরূপ নহে ৷ মানুষ স্বভাবতঃ দুর্বল এবং প্রভুভক্ত। সুতরাং প্রত্যেক মনুয্যের বৰ । ‘অপনি সাক্ষী থাকুন, আমি পুরো । “আৰ কি ?’ বর। আর আমি জন্মের মত ইহার শ্ৰীচরণের গোলাম হইল,ম। তাহর যোগানের ভাব আমার উপর ;–খাইবার ভার উতfর উপল * পুরো (কস্তার প্রতি ) “তুমি কি द्व्न ?' কন্য। আমি ইচ্ছাক্রমে এই ভূতাটিকে গ্রহণ করিলাম। যত দিন ইঞ্চ । হইবে, চরণ সেবা করিতে দিব । মে দিন ইচ্ছা ন হইবে, সেদিন নাতি মারিয়া তাড়াইয দিল |’ .এক২টি প্রভু চাহি । সকল মনুষ্যই । এক২ জন স্ত্রীলোককে অfপন । বলিয়া নিযুক্ত করে। ইহাকেই তাহার বিবাহ বলে। যখন তাহার কাহাকে সাক্ষী রাখিয় প্রভুনিয়োগ করে, তখন সে বিবাহকে পৌরহিত বিবাহ বলা যায়। সাক্ষীর নাম পুরোহিত । বৃহন্নাজল মহাশয় বিবাহ মন্ত্রের যে ব্যাখ্যা প্ৰভু করিয়াছেন, সুহা অযথার্থ সে মন্ত্র এই ; রূপ - * পুরোহিত বিষয়ের সাক্ষী হইতে হইবে ? श्रृंखा । 'श्रृङभट्ट ।' এইরূপ আরও অনেক ভুল আছে । যথা মুদ্রাকে বক্ত। মনুষ্যপূজিত দেবতা বলিয়। বর্ণনা করিয়াছেন, কিন্তু বাস্তলিক উহ! দেবতা নহে । মুদ্র এক প্রকার শিষচত্র । মামুয্যের অভ্যন্ত বিষপ্রিয় ; এই জন্য সচরাচর মুদ্রাসংগ্ৰন্থ জন্য খঞ্জ, বান । মনুষ্যগণকে মুদ্রাভক্ত খ্ৰীমিয় আমি পূর্বে বিবেচনা করিয়াছিলাম ৰে ‘ন জানি মুদ্র কেমনই উপাদের সামগ্রী; আমাকে একদিন খাইয় দেখিতে হুইবে ? একদা বিদ্যাধরী নদীর তীরে একটা ‘বল, আমাকে কি : মনুষ্যকে হস্ত করিয়া ভোজন করিপার সময়ে, তাহার স্ত্রমধ্যে কয়েকট ক্ষুদ্র ।