পাতা:বঙ্গদর্শন-প্রথম খন্ড.djvu/১৭৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


| पत्रवर्णन, अं, १९१० ) क्विदूच । পরে ঐশচন্দ্র কমলের ক্রোড় হইতে তাহাকে লইলেন, এবং তুরিং মুখচুম্বন করিলেন - সতীশ বাবু এইরূপে রাজভাগ আদায় করিয়া যথাকালে অবতরণ করিলেন, এবং পিতার স্ববর্ণময় পেন্‌ সিলটি দেখিতে পাইয়া অপহরণ মানসে ধাবমান হইলেন। পরে হস্তগত করিয়া উপাদেয় ভোজ্য বিবেচনায় পেনসিলটি মুখে দিয়া লেহন করিতে প্রবৃত্ত হইলেন। কুরুক্ষেত্রের যুদ্ধ কালে ভগদত্ত এবং অর্জুনপ্রতি অনিবার্ষ্য বৈষ্ণবাস্ত্র নিক্ষেপ করেন ; অর্জুনকে তন্নিবারণে অক্ষম জানিয়া শ্ৰীকৃষ্ণ স্বয়ং বক্ষঃ পাতিয়া সেই অস্ত্র গ্রহণ করিয়া তাহার শমত করেন। সেই রূপ, কমলমণি ও শ্ৰীশচন্দ্রের এই | বিষম যুদ্ধে, সতীশচন্দ্র মহাস্ত্র সকল আপন বদনমগুলে গ্রহণ করায় যুদ্ধের শমত ঐীশচন্দ্র তখন কহিলেন, “তা সত্য ? | সত্যই কি তোমায় গোবিন্দপুরে যেতে হবে? আমি এক থাকিব কিপ্রকারে ?” ক। তোমার যেন আমি একাথাকি আপিল সারিয়া জাইল, আর দেরি করত, সতীশে জানাতে ছুদিগে দুজনে ৰাতে কৰােr. * . , , " ... ".

  • - = * --س-حیعے مسیحی تعیے

অৰ্জ্জুনে ঘোরতর যুদ্ধ হয়। ভদদত্ত বসিলেন আর কথা কহেন না। তে সাধ তেছি। আমিও যাব, সকাল ঐ । আমি যাই কি প্রকারে ? আ- | মাদের এই তিসি কিনিবার সময়। তুমি | ,তবে এক যাও।” ক । “আয়, সতীশ ! আয়, আমরা । দুজনে দুদিকে র্কাতে বসি ।” মার আদরের ডাক সতীশের কানে গেল—সতীশ অমনি পেনসিলভোজন { ত্যাগ করিয়া লহর ভুলিয়া আহলাদের } হাসি হাসিল। সুতরাং কমলের এবার | কাদা হলো না তৎপরিবৰ্ত্তে সতীশের ; মুখচুম্বন করিলেন,—দেখাদেখি শ্ৰীশও. আপনার বাহছুরি দেখিয়া আর এক লহর । তুলিয়া হাসিল। এই সকল বৃহৎ | ব্যাপার সমাধা হইলে,— “এখন কি হুকুম কয় ?” ঐ । “তুমি যাও, মানা করি না। । কিন্তু তিসির মৌস্থমটায় আমি কি প্রকারে | যাই ?” শুনিয়া, কমলমণি মুখ ফিরাইয়া মানে | জীশচন্দ্রের কলমে একটু কালি ছিল। ঐশ সেই কলম লইয়া পশ্চাৎ হইতে | গিয়া কমলের কপালে একটি টীপ, কাটি | য়া দিলেন । · ‘. -|| তখন কমল হাসিয়া বলিলেন, “প্রাণী- | ধিক, আমি তোমায় কত ভাল বালি।’’ | এই বলিয়, কমল শ্ৰীশচন্দ্রের স্কন্ধ বাহু । দ্বারা বেষ্টন করিয়া উহার মুখচুম্বন করি