পাতা:বঙ্গদর্শন-প্রথম খন্ড.djvu/১৯৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


>चचङांदांडूबउिँड ? (मत्रनलव, अॉ३, ४ ३१ یادد গণ বঞ্চিত হইবার উপক্রম হয়। অতএব ! কিন্তু এইক্ষণ আর সেরূপ লোক হয় না। স্বস্বভাবানুবৰ্ত্তিতা সম্বন্ধে এই নিয়ম | সেই মহাত্মার নিজং ক্ষমতাতে যে সকল আবশ্যক যে, আপন বাসনা পূরণের জন্য | কাৰ্য্য বিধান করিয়া গিয়াছেন, তাকাই অষ্ঠের পৃহার ব্যাঘাত জন্মাইতে নাই। এক্ষণকার অন্ধদিগের পথপ্রদর্শক হইমিল কহেন যে, ইহার দ্বারা প্রত্যেকের য়াছে। চীন ভারতের ঋষিরা ইউরোপের মনোবৃত্তির উন্নতি সাধন বিষয়ে কিয়ৎ মহাপুরুষগণ অপেক্ষা কিছুতেই নিকৃষ্ট পরিমাণ ক্ষতি হইবেক বটে, কিন্তু তদ্বি- | ছিলেন না ; তবে কেন ইউরোপের এত নিয়মে দুটা প্রত্যুপকার দৃষ্ট হইতেছে। | প্রাধানা ? মিলের বিবেচনায় ইহার এক এক, স্বস্বভাবানুবৰ্ত্তী স্বনামেধন্য || ব্যক্তির সংখ্যা বৃদ্ধি হইবেক । অপর, ; ইউরোপের মধ্যে ভিন্নং দেশের যাহার পরের সাধ মিটাইবার জন্য আপ ; ভিন্নং জাতিই বল, কি এক জাতিরভিন্ন২ নাদিগের পুহ দমন করিবেন, তাহা- ব্যক্তিই বল, প্রত্যেকেই অন্যের সঙ্গে দিগের পরোপকারিতাবৃত্তির চালনা | নানা প্রকারে বিভিন্ন। প্রত্যেকেই নিজ হইবেক । • বুদ্ধি বিবেচনার প্রতিনির্ভর করিয়া সংসার নিয়মের দাস হওয়া অপেক্ষা স্পৃহা যাত্রা নির্বাহ করিয়া থাকে। কিন্তু চীন সেবা ষে শ্রেষ্ঠ, মিল এসিয়া এবং ইউ- ভারতবর্ষে শাস্ত্র ও দেশাচারের এরূপ রোপ খণ্ডের পরস্পর তুলনার দ্বারা প্রবলত, যে, তাবৎ লোকে প্রায় সকল তাহার এক প্রমাণ দর্শাইয়াছেন। বিষয়েই পরস্পরের অনুরূপ। ইউরোপে তিনি বলেন যে, চীন ও ভারতবর্ষে যে সকল মহৎ লোক জন্ম গ্রহণ করিয়াসকল কার্যেরই এক একটা বিশেষ ছেন, তাহার সকলেই বিভিন্ন উপায়ের বিধি নির্দিষ্ট আছে। কেহ তাঙ্গ উল্ল দ্বার সমাজের উন্নতি সাধনের চেষ্টা জন করিলে তাহাকে সমাজভুষ্ট হইতে ; করাতে অনেক সময়ে পরস্পরের মধ্যে, হয়। কিন্তু ইহার ফল এই যে, ঐ দুই | এবং তাহাদিগের শিষ্য পরম্পরার মধ্যে, রাজ্য এই ক্ষণ নিম্প্রদীপ হইয়াছে। নানা বিরোধ ও এক দল কর্তৃক অষ্ঠের এখানে যে সমস্ত লক্ষণ দেখিতে পাওয়া ! গতি রোধের চেষ্টা হইয়াছে বটে, কিন্তু যায়, তাহাতে রোধ হয় যে, এক সময়ে | ফলে-কেহই অতিরিক্ত প্রাধান্ত লাভ সুভ্যতার বিলক্ষণ উন্নতি ছিল, অতএব ! করিতে পারেন নাই, বরং সমুদায় লোক তাহার উদ্ভাবন কালে অবশ্যই অনেক বিভিন্নমতাবলম্বদিগের সমগ্র উপদেশের মহাপুরুষও এখানে জন্মিয় থাকিবেন। ক্ষারগ্রাহী হইয়াছেন। অতএব এই রূপে