পাতা:বঙ্গদর্শন-প্রথম খন্ড.djvu/২৩৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


बवषभनि, छtः, ७२१> 1) ভারতবর্ঘ্যর পুরাবৃত্ত।-- ఫి రిలి ৱা হীনবল হইয়া আসিলে, সঙ্গবংশীয় নৃপতিগণ পাটলীপুত্রের সিংহাসনারূঢ় হয়েন। এই বংশীয় রাজা পুষ্পমিত্র ১৮৮ খ্ৰীঃ পূঃ একটা প্রকাণ্ড বুদ্ধকূপ প্রস্তুত করিয়াছিলেন। দেবাভূতি সঙ্গবংশের শেষ নৃপতি ও র্তাহার মৃত্যুর পর কশ্ববংশীয় ভূপালগণ ৩১ খ্ৰীঃ পূঃ পৰ্য্যন্ত রাজ্য করিয়াছিলেন। এ সময় হিন্দু ধৰ্ম্মের প্রবল জ্যোতিঃ দিন দিন বিকীর্ণ হইয়া বৌদ্ধ ধৰ্ম্মকে মলিন করিয়াছিল। অশোকের পরে কেহই ভারতবর্ষের একেশ্বর হইতে পারেন নাই । মগধরাজ্য কিছুকাল গুপ্ত বংশীয় নৃপতিগণের অধীনে ছিল । মহারাজ গুপ্ত, গুপ্ত বংশের আদি পুরুষ। তাহার রাজ্যকাল হইতে ৩১৯ খ্ৰীঃ অঃ গুপ্ত ! অকেদর প্রথম বর্ষ গণনা করা যায় । এলাহাবাদ ও ভিটারীর লাট প্রস্তরে প্রখোদিত লিপি পাঠে অবগত হওয়া যায়, “মহারাজ অধিরাজ” সমুদ্র গুপ্ত ভারতবর্ষের একজন প্রবলপরাক্রান্ত ভূপতি ছিলেন। ইনি গুপ্ত বংশীয় চতুর্থ নৃপতি। সমুদ্ৰগুপ্ত শক্রবর্গের কৃতান্তস্বরূপ এবং জেনের সাক্ষাৎ জনিত সিঞ্জয় সৌরাষ্ট্র, নেপাল, আসাম প্রভৃতি বিবিধ রাজ্যে স্বীয় প্রভুত্ব স্থাপন করেন। এক্ষণ হইতে অঙ্গ, বঙ্গ, কলিঙ্গ গ্রন্থতি পৃথকং রাজ্য ভিন্নং ৰূপ - * डिनि উজ্জ্বয়িনীর অধিপতি বিক্রমাদিত অতি বিখ্যাত ছিলেন। তাহার রাজ্যকালে উৎকৃষ্ট২ কাব্য, নাটক, প্রচা রিত হইয়া সংস্কৃত সাহিত্যসংসার উজ্জ্বল করিয়াছে ; তিনি ৭৮ খ্ৰী: পুঃ শকদিগকে দমন করিয়াছিলেন কাস্যকুব জের রাজসিংহাসনে যে সকল হিন্দু নৃপতি আসীন ছিলেন, তাহা মধ্যে হর্ষবৰ্দ্ধনের নাম ভুবন বিখ্যাত জনৈক বৌদ্ধপরিব্রাজক হিয়াস্থ সাঙ র্তাহার সহিত সাক্ষাৎ করিয়াছিলেন । আপন ভ্রমণবৃত্তান্ত মধ্যে লিখিয়াছেন যে, হর্ষবৰ্দ্ধন প্রায় ৩৫ বৎসর সুখে°রাজ্য করিয়া ৩৫০ খ্ৰীঃ অঃ মানব লীলা সম্বরণ করেন । 蛤 বহুবিধ সংস্কৃত গ্রন্থকার ধারানগরাধিপতি ভোজ রাজের নাম উল্লেখ করিয়াছেন। ভোজরাজ বিবিধ বিদ্যাবিশারদ ছিলেন, এবং স্বীয় অসীম কবিত্ব শক্তি প্রভাবে “সরস্বতী কণ্ঠীভরণ” নামক প্রসিদ্ধ অলঙ্কার গ্রন্থ রচনা করেন।. বল্লাল কৃত “ভোজপ্রবন্ধে” লিখিত আছে, "ধারানগরে কোন মুখ ছিল না। শ্ৰীমন ভোজরাজকে সতত বররুচি, স্ববন্ধু, বাণ, ময়ুর, বামদেব, হরিবংশ, শঙ্কর, বিছাবিনোদ, কোকিল, তারেন্দ্র প্রভৃতি ৫০০ শত বিদ্বান ব্যক্তি বেষ্টন করিয়া থাকেন।” পালবংশীয় এবং গঙ্গাবংশীয় ভূপাল