পাতা:বঙ্গদর্শন-প্রথম খন্ড.djvu/৪০৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


नििन्, च:.१६१a१) A. . 8 e ol করিয়াছিলেন । তাহাতে ৪৭০ বৎসরের ভ্রম ਫੌਂਸ਼ উঠিয়াছে : শক্রঞ্জয় মহাক্সোর মতানুসারে বল্লভীরাজ শিলাদিত্য বিক্র মের ৪৪৭ বৎসর পরে (৪২০ খ্ৰীঃ অঃ) সৌরাষ্ট্র হইতে বৌদ্ধদিগকে বহিস্কৃত করিয়া শত্রুঞ্জয় এবং অন্যাস্য তীর্থ স্থান পুনগ্রহণ করত জৈন মন্দির সমুহ সং স্থাপিত করেন। আজি কালি, উইল ফোর্ডের কথায় কেহ বিশ্বাস করেন না। তাহার সকল কথা এক্ষণকার ভাষা তত্ত্ববিৎ পণ্ডিতেরা খণ্ডন করিয়াছেন। রাজতরঙ্গিণীতে লিখিত আছে, খ্ৰীষ্টীয় পাঁচ শতাব্দীতে বিক্রমাদিত্য উজ্জয়িনীতে রাজ্য করেন। এবং তিনি মাতৃ গুপ্ত নামক জনৈক ব্রাহ্মণকে কাশ্মীরের শাসন কৰ্ত্তীর পদ প্রদান করেন । গ্রস্থে লিখিত আছে, বিক্রমাদিত্য এক বৎসর রাজ্য করিয়া ৫৪১ খ্রীঃ অব্দে পর লোক গত হয়েন । উইলসন সাহেব হর্ষ বিক্রমাদিত্য সস্বন্ধে “আশীয়াটিক রিসার্চেস” পুস্তকে লিখিয়াছেন, শকারি বিক্রমাদিত্যের পূর্বে এই নামধেয় আর এক জন ভূপালের নাম পাওয়া গিয়াছে । তিনি র্তাহার বিশেষ বিবরণ কিছুই লেখেন নাই । মুসলমান লেখকগণ বিক্রমাদিত্যের পুনঃ২ নামোল্লেখ করিয়াছেন, কিন্তু অন্য কোন বিষয় জ্ঞাত ছিলেন না । কঙ্কণ পণ্ডিত রাজ তরঙ্গিণীর তৃতীয় હરે তরঙ্গে যে বিক্রমের উল্লেখ করিয়াছেন, তিনি শকাবদা স্থাপনের পরে বর্তমান ছিলেন। ইহাকে কৰিবন্ধু ও বিবিধ গুণ মণ্ডিত বলা হইয়াছে । তাহার মাতৃগুপ্ত, বেতাল মেস্থ এবং ভর্তুমেন্থ সভাসদ ছিলেন। “মেস্থ”নিঃসন্দেহ ভট্টশব্দ বাচক, তাহা হইলে বেতাল মেস্থ এবং ভর্তৃমেন্থ, বেতাল ভট্ট, ও ভর্তৃভট্ট। কোন২ জৈন গ্রন্থে “মেস্থ শব্দ” মেন্ধ লিখিত আছে। বিশ্বকোষ অনুসারে সংস্কৃত ভাষায় মেস্ক, অর্থ প্রধান। বেতাল ভট্ট বিক্রমের নবরত্বের অন্তর্বত্তী এবং ভর্তৃহরি নীতি বৈরাগ্য ও শৃঙ্গার শতক গ্রন্থকার। ইনি বিক্রমাদিত্যের ভ্রাতা বলিয়া প্রসিদ্ধ, কিন্তু মাতৃগুপ্ত কে ? রাজ তরঙ্গিণীর তৃতীয় তরঙ্গ ১০২ লইতে ২৪২ শ্লোক মধ্যে বিক্রমাদিত্যের বিবরণে মাতৃগুপ্তের বিষয় লিখিত আছে । তিনি স্বপ্রসিদ্ধ কবি এবং কাশ্মীরের শাসনকৰ্ত্ত । মাতৃ গুপ্ত কালিদাসের অপর একটি নাম। কিন্তু পুরুষোত্তম কৃত ত্রিকাগু শেষ মধ্যে কালিদাসের—রঘুকার, কালিদাস, মেধt. রুদ্র এবং কোটিজিত এই ৪টি মাত্র নাম লিখিত আছে। মাতৃগুপ্ত কৃত কোন গ্রন্থ বর্তমান নাই, অথচ তাহাকে কহলণ প্রধান কবি বলিয়াছেন রাঘব ভট্ট শকুন্তলার টাকা মধ্যে মাতৃগুপ্তচাৰ্য্যের কতি পয় অলঙ্কারের শ্লোক উদ্ধৃত করিয়াছেন। তৎপাঠে বোধ হয়, সে গুলি প্রধান কৰি