পাতা:বঙ্গদর্শন-প্রথম খন্ড.djvu/৪২১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8९० পরিজ্ঞান হওয়া আবশ্যক । ধৰ্ম্মনীতি । নতুবা কখন স্বকীয় বহুকাল ধৃত কোন ক্রিয়ার (षणकां, षः. $११a যাহার অস্তিত্বই সন্দেহ জনক, তাহার | পরিবর্তন সাধনে কৃতসংকল্প इश्याईनै,, সহিত কে বিবাদে প্রবৃত্ত হইতে পারে ? কিন্তু দোষ পরিজ্ঞান মাত্রেই যে তাত্মপরিক্ষার উদ্দেশ্য সফল হইল, এরূপ বোধ করা সম্পূর্ণ ভ্রমের কার্য্য। উহার ফললাভ আরও কিছুর সাপেক্ষ ; সেই কিছু অভ্যাস। যখন নিঃসন্দেহে আপনার কোন দোষ বুঝিতে পারা যায়, তখন তৎপ্রতিবিধানর্থ অভ্যাসের শরণ লওয়া আবশ্যক। অনেক দিন কোন বিষয়ের আলোচনা করিতে করিতে তৎপ্রতি আমাদের এক প্রকার তাiশক্তি জন্মিয় যায় ; এই আসক্তি দৃঢ়, বদ্ধমূল'ও স্থায়ী হইলে অভ্যাস রূপে পরিণত হয় । কোন ' দোষ পরিহার করিতে হইলে তাগ্রে তৎ• । প্রতি পূর্বের আসক্তি ত্যাগ, এবং তৎ পরে অভ্যাস দ্বারা তাহার বিরোধী গু ণের আয়ত্ব করা আবশ্যক , অভ্যাস অ|মাদের সাধারণ শক্তি নহে। যাহা কিছু স্বাভাবে মূল অভ্যাস তাহার অনেকাংশে পূরণ করিতে পারে। বস্ততঃ অভ্যাস আমাদের স্বভাবের সহায়, কাৰ্য্যসূত্রের গ্রন্থি। এই গ্রস্থির শিথিলতার সকল কাৰ্যই শিথিল হইয়া যায়। এই গ্রস্থির অবিদ্যমানে নিয়মাবলী কৌতুক মাত্ৰ কাৰ্যকলাপ বিশৃঙ্খলা ব্যতীত আর কিছুই নহে। ইহার শক্তি কিরূপগুরুতর, এবং প্রকৃতি কিরূপ অপরিবর্তনশীল, যিনি তিনিই তাহা সম্যক প্রকারে বুঝিতে পারিয়াছেন। জড় পদার্থে কোন প্রকার, বল প্রয়োগ করিলে যেমন সে প্রভিনিয়তই সেই বলের অধীন হুইয়া চলিতে । থাকে ; এবং যথেষ্ট প্রতিবন্ধক উপস্থিত না হইলে মহা প্রলয় পৰ্য্যস্ত এক ভাবে চলে, একবার অভ্যাসের অধীন হইয়া পড়িলে মানব প্রকৃতিরও সেই রূপ অবস্থা ঘটে । তখন ইহাকে প্রতুিনিৰ্বিত্ত করা নিতান্ত প্রয়োজনীয় হইলেও সহজে পারুিবার সাধ্য কি ! তজ্জস্য মূহ বিপদগ্ৰস্ত হইতে এবং অশেষ কষ্ট ভোগ করিতে হয়। অধিক কি, বহুকালের অভ্যাস হইলে চরমকাল ভিন্ন প্রায়ই তাহার হাত হইতে নিস্কৃতি পাওয়া যায় না এই শক্তির বিষয় পর্যালোচনা করিতে করিতে মনোমধ্যে এই এক প্রবোধেরু উদয় হয়, এবং তজ্জনিত এক চমৎকার আনন্দ অনুভব করিতে পারা যায় যে যে জ্ঞান পথাতীত মহাপুরুষ, যে অনাদি অনন্ত সময় ও স্থান ব্যাপী এই বিশ্বের নিয়ন্ত মানবরূপ আশ্চৰ্য্য জীবের স্বঃি করিয়া তাহাকে স্বস্বভাৰ প্ৰদান করিয়া ছেন তিনি সেই.স্বভাব দোষ শুষ্ঠ নহে জানিয় তাহাকে বাধ্যতার নিতান্ত জনধীম করিয়া দেন নাই। এইংৰাঞ্চড়াই অভ্যাস দ্বারা রক্ষিউ হইতেছে। সচরাচর