পাতা:বঙ্গদর্শন-প্রথম খন্ড.djvu/৪৩১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


o ' ধর্থনীতি। دهه শারীরিক কুপ্রবৃত্তির উদ্দীপক, তাছাইছ আদিরস যদি কেবল বিশুদ্ধ প্রেমাত্মক স্থ্য এবং কাব্যের অযোগ্য। কিন্তু এদেশে এবং ধর্মের সহায় হয়, তবে তাছাতে কতক গুলিন অর্ধশিক্ষিত বা অশিক্ষিত আমরা সমাদর করি, ইহা বলিতে আ৮ লোক হইয়াছেন,—ষ্ঠাহাদিগের নিকট মাদিগের লজ্জা নাই। কিন্তু কেবল বিশুদ্ধ দম্পতী প্রেম—বাহ সংসারের শারীরিক প্রবৃত্তির উদ্দীপক রসে যে একমাত্র পবিত্র গ্রস্থি, এবং মমুষ্যের সমাদর করে, তাহাকে পশু মধ্যে গণনা প্রধান ধৰ্ম্ম, চিত্তোৎকর্ষের প্রধান উপায় করি। যে কাব্য সে রসাত্মক, তাহ তাহাও আদিরস ঘটিত এবং অশ্লীল সমাজের ঘোরতর অনিষ্টকারী। এই বলিয়া ঘৃণ্য। তাহারা মনে করেন ; কাৰ্যমালা গ্রন্থ খানি সেই মহাদেৰে এইরূপ কথা কহিলেই, লোকে ইংরাজি দূষিত “কোন প্রৌঢ় নায়িকার প্রতি ওয়ালা ও স্বসভ্য বলিবে। র্তাহাদিগকে নায়কের উক্তি” “পয়োধর” ইত্যাদি গগু মূর্খ বলিতে আমাদিগের কোন কবিতাগুলি এই কথার প্রতিপোষক । বাধা নাই। এ ঘৃণা তাহুদিগের একেত রস এই, তাহাতে আবার পু স্বচিত্তের সমলতারই ফল। যাহার রাতন। কাৰ্য মধ্যে এ রসেরও নুতন কিছুই বিশুদ্ধ ভাবে দেখিতে জানেন কথা কিছু দেখিলাম না। সকলই চৰ্ব্বিত ন, তাহাদিগের চোখে সকলই সমল । চর্বণ। গ্রন্থকার নিজেই তাহা স্বীকার যাহাদিগের চিত্ত কেবল কুক্রিয়ার অভি করিয়াছেন – 曼 লাৰী, বিশুদ্ধ বর্ণনাও র্তাহাদিগের ; “যদিও এ ফুলচর, সমুদয় নব নয় কুপ্রবৃত্তির উদ্দীপক হইয় উঠে । রসপূর্ণ বটে কি না তোমারে বুঝাই” আমরা অনেকবার দেখিয়াছি, অতি | - ૨ જૂઠ્ઠા । বিমল প্রসঙ্গেরও এই পাপাত্মার অসদর্থ ; তবে গ্রন্থকার এত কষ্ট স্বীকার করিয়া বুৰিয়ছে। সে স্বসভ্য শ্রেণী মধ্যে ; কবিতাগুলি না লিথিয়,পূৰ্ব্ব কৰিদিগের f আমরা গণ্য হইবার অভিলাষী নহি ; উপর বরান্ত দিলেই গোল মিটিত। ”