পাতা:বঙ্গদর্শন-প্রথম খন্ড.djvu/৪৬২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


दअनefन, c*ौ% ३९** ) 鹤心为 এজন্য সমুদয়াংশ উদ্ধৃত করার প্রয়ো| छन'नइि । রাধার এই কথায় অনেককে প্রেমাশ্র বর্ষণ করিতে হয়। কৃষ্ণকে বধিবে, এইট কেবল কথায় মাত্র বলা হইয়াছিল ; রাধা তাহাতে বাথ পাইলেক। কিন্তু স্বন্দরকে কেবল কথায় নহে, প্রকৃত প্রস্তাবে রক্ষুসংযুক্ত করিয়া বঁধিল, মসানে | কাটিতে পৰ্য্যন্ত লইয়া গেল, তথাপি ! विनांब कभीभाज७ छूःथ इश्ल मा, শ্রোতাদিগেরও দুঃখ হইল না ; অশ্র| পাতের ত কথাই নাই। বিদ্যান্বন্দর ভক্তগণ, বোধ হয়, এই০তুলনায় বুঝিতে পরিবেন যে, বিদ্যার প্রণয় অতি প্রগাঢ় বলিয়া যাত্রায় বর্ণিত হয় নাই। এই তুলনায় আরো বুঝিতে পরিবেন যে, পূর্বকালের কীৰ্ত্তন কি যাত্রা এখনকার অপেক্ষ অনেকাংশে শ্রেষ্ঠ ছিল। উহার প্রণেতৃগণ কবি ছিলেন এবং শ্রোতৃগণ | অপেক্ষাকৃত রসজ্ঞ ছিলেন। ক্রমে উভয়েরই এক্ষণে অধঃপতন इ३ग्नाइ । এবং দেবতুল্য ঋষি সাজা হুইত, এক্ষণে শ্রোতাiদগের মনোরঞ্জন করা হয়। | সচরাচর যে রূপ চিত্তবৃত্তির বেগ দেখা যায়, তাঁহাতে আমাদের আকাঙক্ষণ পরিতৃপ্ত হয় না। তদপেক্ষ কিঞ্চিৎ অসাধা}রণ চাই . অন্ততঃ কিঞ্চিৎ স্বৰ্গীয় স্থখ সেই স্থলে মেজর মেভরাণী সাজিয়া সৌরভ মাখা অকৃত্রিম পবিত্র চিত্তের পরিচয় পাইলেও সুখ হয় । কিন্তু সে পরিচয় কবি ভিন্ন আর কাহারো দিবার সাধ্য নাই । তাহাতে কবির কল্পনা শক্তি আবশ্বক। যদি অপরে চেষ্টা করে, 1 তাহা হইলে এই যাত্রায় যে রূপ বিদ্যা- | স্বন্দরের পরিচয় আছে, সেই রূপ হইয়া | পড়ে—অর্থাৎ মাহায়ের পরিবর্তে রহস্ত | হইয়া পড়ে। বাস্তবিক এই যাত্রায় রহস্যের ভাগ । অধিক মালিনী সুন্দরের কথাবার্তা কি | বিদ্যাসুন্দরের কথাবাৰ্ত্ত, উভয়ই সম- | ভাবে রহস্ত পরিপূরিত। কখন কখন | প্রণয়ীদিগের মধ্যে রহস্য কি কৌতুকালাপ হইয়া থাকে বটে, কিন্তু | তাছা অতি সাধারণ। যে স্থলে প্রণয় | গভীর, সে স্থলে উপহাস রহস্যাদি স্থান । পায় না । কিন্তু এই যাত্রায় মদি রহস্যের । ভাগ ত্যাগ করা যায়, তবে সুন্দরের | বাকুরোধ হয়, মালিনীর ত কথাই নাই। । বিস্তার কথাবাৰ্ত্ত সহজেই অল্প ; রহস্যের । উত্তর না দিতে হইলে, তাহার গীতের | ভাগ অৰ্দ্ধেক কমিয়া যায়। . . এই যাত্রায় মালিনীই প্রধান তাহার | রঙ্গরস লইয়াই এই যাত্রা। কাধেই । ইহাতে হাস্যরস ব্যতীত আর কোন রসের | প্রবলভ নাই। নায়ক নায়িক অর্থাৎ বিদ্যান্বন্দর উপলক্ষ মাত্র। মালিনীর যৎকিঞ্চিৎ शन। আছে, किशु বিহু