পাতা:বঙ্গদর্শন-প্রথম খন্ড.djvu/৪৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


স্থs2 ব্র্যাম্ৰাচাৰ্য্য বৃহন্নাঙ্গল। (दत्रक्-वि, वs s३१> ॥ করিয়া, এক শকটের উপর উঠাইল। ছুই অমলশ্বেতকাস্তি বলদ ঐ শকট বহন করিতেছিল। তাহাদিগকে দেখিয়া আমার বড় ক্ষুধাম উদ্রেক হইল। কিন্তু তৎকালে ভৌতিক মণ্ডপ হইতে বাছির হইবার উপায় ছিল না, এ জন্য অৰ্দ্ধভুক্ত ছাগে তাহা পরিতৃপ্ত করিলাম। আমি মুখে শকটারোহণ করিয়া, ছাগ মাংস ভক্ষণ করিতে করিতে এক নগরবাসী শ্বেতবর্ণ মনুষ্যের আবাসে উপস্থিত হইলাম। সে আমার সম্মানার্থ স্বয়ং দ্বারদেশে আসিয়া আমার অভ্যর্থনা করিল। এবং লৌহ দণ্ডাদি ভূষিত এক মুরম্য গৃহ মধ্যে আমার আবাসস্থান নির্দেশ করিয়া দিল । তথার সজীব বা সদ্য হত ছাগ মেষ গবাদির উপাদেয় মাংস শোণিতের স্থার আমার সেবা করিত। অন্যান্য দেশ বিদেশীয় বহুতর মনুষ্য স্বামীকে দর্শন করিতে আসিত, আমিও বুঝিতে পারিভাম যে, উহারা আমাকে দেখিয়া চরিতার্থ হইত। আমি বহুকাল ঐ লৌহজালাবৃত প্রকোঠে }াস করিলাম। ইচ্ছা ছিল না যে, সে মুখ শাশ্ন কমিয়া আর ফিবিয়া আসি। কিন্তু স্বদেশ-বাৎস্য প্রযুক্ত থাকিতে পারিলাম না । আগ । যখন এই জন্মভূমি আমার মনে পড়িত, তখন আমি হাউ ৬ হাউ করিয়া ডাকতে থাকিতাম। হে মাতঃ, স্বন্দরবন । ভূমি কি তোমাকে কখন ভুলিতে পারিব ? 'ভাই ! তোমাক যখন মনে পড়িত, তখন আমি ছাগ মাংস, ত্যাগ করিতাম ! মেষ মাংস ত্যাগ করিতাম। ( অর্থাৎ অস্থি এবং চৰ্ম্মমাত্র ভ্যাগ করিতাম )–এবং সৰ্ব্বদা লালাঘাতের বাবা আপনার অন্তঃকরণের চিন্তা লোককে জানাইতাম। হে জন্মভূমি । যত দিন আমি তোমাকে দেখি নাই,তত দিন ক্ষুধা না পাইলে খাই নাই,. ড়ি না আসিলে নিদ্র.যাই নাই, দুঃখের অধিক পরিচয় আর কি দিব ? পেটে যাহা ধরিত, তাহাই খাইতাম, তাহার উপর আর দুই চারি সের মাত্র মাংস খাইতাম । আর খাইতাম না - ' + তখন বৃহন্নাঙ্গল মহাশয়, জন্মভূমির প্রেমে অভিভূত হইয় অনেকক্ষণ নীরব হইয়। রছিলেন । বোধ হইল, তিনি অশ্রুপাত করিতেছিলেন, এবং স্থই এক বিন্দু স্বচ্ছ ধারা পতনের চিহ্ন ভূতলে দেখা গিয়াছিল। কিন্তু কতিপয় যুবা ব্যাঘ্র তর্ক করেন যে, সে বৃহরাঙ্গলের অশ্রুপতনের চিন্তু নহে। মনুষ্যালয়ের প্রচুর আহারের কথা স্মরণ হইয় সেই ব্রাম্বের মুখে লাল পড়িয়াছিল । - - লেকৃচরর তখন ধৈর্য্য প্রাপ্ত হইয়া পুনরপি বলিতে আরম্ভ করিলেন, “কি প্রকারে আমি সেই স্থান ত্যাগ করিলাম, তাহ বলিবার প্রয়োজন নাই। আমার অভিপ্রায় বুধিয়াই হউক, আর ভুলক্রমেই হউক, আমার ভূভা এক দিন আমার মন্দির-মৃার্জনাস্তে, দ্বার মুক্ত রাখিয়া গিয়াছিল। আমি সেই দ্বার দিয়া নিশ্রশস্ত হইয়া উদ্যানরক্ষককে মুখে করিয়া । লইয়া চলিয়া আসিলাম। . এই সকল বৃত্তাস্ত সবিস্তারে বলার কারণ এই ষে, আমি বহুকাল মনুষ্যালয়ে বাস করিয়া ত্যাসিয়াছি—মনুষ্য চরিত্র সবিশেষ অবগত আছি—শুনিয়া আপনার আমার কথায় TSE