পাতা:বঙ্গদর্শন-প্রথম খন্ড.djvu/৫২০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


(वश्रानिर्भम, भiः: $२१• ) &ని উড়িতেছে। চারিদিগে বহুসংখ্যক পৌরবগ নানাপ্রকার বেশভূষা ধারণ করিয়া আলো করিয়া রহিয়াছে। বহু -সংখ্যক ভিক্ষুক ব্রাহ্মণ আসিয়াছে। কত২ পুররক্ষিগণ গোল থামাইতেছে। এই চিত্রের নীচে সূর্যমুখী স্বহস্তে লিখিয়া ! | রাপিয়াছেন,-“যেমন কৰ্ম্ম তেমনি ফল । স্বামির সঙ্গে সোনা রূপার তুলা ?” নগেন্দ্র যুখন কক্ষ মধ্যে একাকী প্রবেশ করিলেন, তখন রাত্রি দ্বিপ্রহর অতীত হইয়াছিল। রাত্রি অতি ভয়ানক। সন্ধ্যার পর হইতে তাল্প২ বৃষ্টি হইতেছিল। এবং বাতাস উঠিয়ছিল। এক্ষণে ক্ষণে২ বৃষ্টি হইতেছিল, বায় প্রচণ্ড লেগ ধারণ করিয়াছিল। গৃহের কবাট রেখানে২ মুক্ত ছিল, সেই খানে২ বজ্ৰতুল্য শব্দে তাহার প্রতিঘাত হইতেছিল । সাসী সকল ঝন শব্দে শদিত হইতে| ছিল। নগেন্দ্ৰ শয্যাগৃহে প্রবেশ করিয়া দ্বার রুদ্ধ করিলেন । তখন বাত্যানিনাদ মন্দীভূত হইল। খাটের পাশে আর একটা দ্বার খোলা ছিল—সে দ্বার দিয়া বাতাস আসিতেছিল না, সে দ্বার মুক্ত রছিল। 叠 , নগেন্দ্ৰ শয্যাগৃহে প্রবেশ করিয়া, দীর্ঘ নিশ্বাস ত্যাগ করিয়া একখানি সোফার উপর উপবেশন করিলেন । ৰূগেন্দ্র তাছাতে বসিয়া কত যে র্কাদিলেন, তাছী ক্লেহ জানিল ৰা। কতবার একদিন আপনি ফুল পরিতে সাধ সূৰ্য্যমুখীর সঙ্গে মুখামুখি করিয়া সেই সোফার উপর বসিয়া, কত সুখের কথা বলিয়াছিলেন! নগেন্দ্র ভূয়ো২ সেই অচেতন আসনকে চুম্বনালিঙ্গন করিলেন। আবার মুখ তুলিয়া সূৰ্য্যমুখীর প্রিয়চিত্রগুলির প্রতি চাহিয়া দেখিলেন ; গৃহে উজ্জ্বল দীপ জুলিতেছিল—তাহার চঞ্চল রশ্মিতে সেই সকল চিত্র পুত্তলী সজীব দেখাইতেছিল । প্রতিচিক্রে নগেন্দ্র সূর্যমুখীকে দেখিতে লাগিলেন। র্তা হার মনে পড়িল যে, উমার কুকুৰ্মশয্যা দেখিয়া সূৰ্য্যমুখী করিয়াটিলেন । তাহাতে নগেন্দ্র আপনি উদ্যান হইতে পুষ্পচয়ন করিয়া আনিয়া , স্বহস্তে সূৰ্য্যমুখীকে কুসুমময়ী সাজাইয়াছিলেন। তাহতে সূর্যমুখী যে কত সুখী হইয়াছিলেন—কোন রমণী রত্নময়ী সাজিয়া তত সুখী হয় ? আর একদিন স্বভদ্রার সারথ দেখিয়া সূৰ্য্যমুখী নগেন্দ্রের গাড়ি, হাকাইবার সাধ - করিয়াছিলেন । পত্নীবৎসল নগেন্দ্র তখনই একখানি ক্ষুদ্র যানে দুইটি ছোট২ বৰ্ম্ম জুড়িয়া অন্তঃ- | পুরের উদ্যান মধ্যে সূৰ্য্যমুখীর সারথ্য জন্য আনিলেন। উভয়ে তাহাতে আরোহণ করিলেন"। সূৰ্য্যমুখী বলগা ধরিলেন । অশ্বের আপনি চলিল । দেখিয়া, সূৰ্য্যমুখী স্বভদ্রার মত নগেন্দ্রের দিকে মুখ ফিরাইয় T তিরে,