পাতা:বঙ্গদর্শন-প্রথম খন্ড.djvu/৫২৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


૮૨, কিন্তু জ্ঞানেই মুক্তি, এ কথা সত্য হইলেও ইহার দ্বারা ভারতবর্ষের পরম লাভ হইয়াছে "বলিতে হইবে। প্রাচীন বৈদিক ধৰ্ম্ম ক্রিয়াত্মক ; প্রাচীন আর্যোর প্রাকৃতিক শক্তির পূজা এক মাত্র মঙ্গলোপীয় বলিয়া জানিতেন। প্রাকৃতিক শক্তি সকল অতি প্রবল, অস্থির, কালিদাস । অশাসনীয়, কখন মহা মঙ্গলকর, কখন , মহা অমঙ্গলের কারণ দেখিয়া প্রথম জ্ঞানির তাহাদিগকে ইন্দ্র, বরুণ, মরুৎ, অগ্নি প্রভৃতি দেবতা কল্পনা র্তাহাদিগের স্তুতি এবং উপাসনা করেন । ক্রমে র্তাহাদিগের প্রীত্যৰ্থ যাগ যজ্ঞাদির বড় প্রবলত হইল। অবশেষে সেই সকল যাগ যজ্ঞাদিই মনুষ্যের প্রধান কাৰ্য্য এবং পারত্রিক সুখের এক মাত্র উপায় বলিয়া, লোকের একমাত্র অনুষ্ঠেয় হইয়৷ পড়িল। শাস্ত্র সকল কেবল তৎসমুদায়ের আলোচনার্থ স্বস্ট হইল—প্রকৃত জ্ঞানের করিয়া | | | I | (वक्रमलन, भt:. २२*१ ।। কেবল ক্রিয় কলাপের কথায় পরিপূর্ণ। যে কিছু প্রকৃত জ্ঞানের চর্চা হইত, তাহ কেবল বেদের আনুসঙ্গিক বলিয়াই । সে সকল শাস্ত্র বেদাঙ্গ বলিয়া খ্যাত হইল । জ্ঞান এই রূপে ক্রিয়ার দাসত্ব শৃঙ্খলে বন্ধ হওয়াতে, তাহার উন্নতি হইল না । কৰ্ম্মজন্য মোক্ষ,এই বিশ্বাস ভারতভূমে অপ্রতিহত থাকাতেই এরূপ ঘটিয়ছিল । ইহার ফল মহা ভয়ঙ্কর হইয়া উঠিল । প্ৰকৃত জ্ঞানের আলো চনার অভাবে বেদভক্তি আরও প্রবলা হইল। মনুষ্যচিত্তের স্বাধীনতা একবারে লুপ্ত হইতে লাগিল । মনুষ্য বিবেকশূন্ত । মন্ত্ৰমুগ্ধ শৃঙ্খলবদ্ধ পশুবৎ হইয়া উঠিল ! সাংখ্যকার প্রথম বলিলেন, কৰ্ম্ম, অর্থাৎ হোম যাগাদির অনুষ্ঠান, পুরুষাৰ্থ । নহে। জ্ঞানই পুরুষাৰ্থ। জ্ঞানেই মুক্তি। কৰ্ম্মপীড়িত ভারতবর্ষ সে কথা শুনিল । জ্ঞানের আলোচনার সূত্রপাত হইতে প্রতি আৰ্যজাতির তাদৃশ মনোযোগ | লাগিল। অন্যান্য দর্শনের স্বঃি হইতে হইল না। বেদের সংহিতা, ব্রাহ্মণ, লাগিল । শাক্য সিংহের পথ পরিষ্কার উপণিষৎ-আরণ্যক, এবং সূত্রগ্রন্থ সকল হইল। কালিদাস । বঙ্গদর্শনে, প্রয়াসসঙ্কলিত বিচিত্র সূত্ৰ- মাত্র উত্তোলন করিয়া কবির মুখ নিরীক্ষণে গ্রথিত যে দুশ্চেন্ত সংশয় জালে কালি প্রয়াস পাইয়াছি। দাস আবৃত হইয়াছেন, তাহার কিয়দংশ দক্ষিণাবর নাথকৃত রঘুবংশের প্রথম