পাতা:বঙ্গদর্শন-প্রথম খন্ড.djvu/৬৪৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


'| ૭89 : . পাপ্ত গ্রন্থের ক্ষিপ্ত সমালোচন । - । वक्रछ०बैं. 2कङ ३१० ? বাঙ্গালির স্বভাব সেরূপ নহে। গঙ্গালী অস্য যে কার্ঘ্যে পরায়ুখ হউন না কেন কলহে কদাপি পরাখুখ নতেন । সমালোচনায় অপ্রশংসা দেখিলেই তাহার প্রতিশদ করিতে হইবে— প্রতিবাদ . করিতে গেলে এ সম্প্রদায়ের লেখকদিগের দৃঢ় বিশ্বাস আছে যে, ভদ্র লোকের ভাষ এবং ভদ্রলোকের ব্যবহার পজ্জনীয়। যে দেশে অল্পকাল হইল, কবির লড়াই ভদ্রলোকের প্রধান আমোদ ছিল—যে দেশে অদ্যাপিও পাঁচালি প্রচলিত, যে দেশের লোক অশ্লীল গালিগালাজ ভিন্ন অন্য গালি | i জানে না, সে দেশের ক্রুদ্ধ লেখকেরা যে রাগের সময়ে আপনাপন শিক্ষা এবং ংসর্গের স্পষ্ট পরিচয় দিতে কুষ্ঠিত হইবেন না, তাহ সহজেই অনুমেয় । কখনই দেখিয়াছি যে, মহাসন্ত্রা দেশমাস্ত ব্যক্তিও আপনার সম্মনের ক্রটি হইয়াছে বিবেচনা করিয়া রাগন্ধ হইয়া হতরের আশ্রয় অবলম্বন করিয়াছেন, এবং মাতৃ ভাষাকে কলুষিত করিয়াছেন। কখন, “দেখিয়াছি, রাগান্ধ লেখকের সমালোচনার মৰ্ম্ম গ্রহণ করেভও অক্ষম । যদি আমরা কোন পুস্তকান্তর্গত চৰ্ব্বিত চৰ্ব্বণকে ব্যঙ্গ করিয়াঁ “নুতন” বলিয়াছি, গ্রন্থকার মনে করিয়া ছন, যে সত্য সত্যই তুহার কথা গুলিকে নুতন বলিয়ছি। 'যদি কোন গ্রন্থে দুই আর দুই চারি হয়, AAAASSAAAASSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSAAAAAA এমত কথা পাঠ করিয়া, তাহা দুজ্ঞেয় বলিয়া ব্যঙ্গ ক'রয়াছি আমনি গ্রন্থক র মনে কবিয়াছেন যে, আমার আবিষ্কৃ • তত্ত্ব সত্য সত্যই দুজ্ঞেয় বলিয়া নিন্দা করিয়াছে। স্বতরাং তিনি অধীর হষ্টয়া প্রমাণ করিতে বসিয়াছেন যে র্তাহার কথা গুলি অতি প্রাচীন এবং সকলেরই জ্ঞানগোচর। কখন২ দেখিয়াছি, কোন সমান্য অপরিচিত লেখক মনে২ স্থির l করিয়াছেন, আমরা ঈর্ষ্য বশতই তাহার গ্রন্থের নিন্দ করিয়াছি এ সকল রহস্তে | বিশেষ আমোদ প্রাপ্ত হইয়া,থাকি বটে

কন্তু কতক গুলিন ভাল মানুষকে যে মনঃপীড়া দিয়া থাকি, এবং তঁ হাদিগের বিরাগভাজন হই, ইহা তামোদিগের বড়

ঃখ । অতএব বঙ্গয় পুস্তক সমালোচনা · আমাদিগের বড় অপ্রীতিকর কার্য্য হইয়া উঠিগছে । কেবল কৰ্ত্তব্যামুরোধেই আমরা তাহাতে প্রবৃত্ত কৰ্ত্তবানুরোধেঠ আমরা অচিছুক হইয়াও প্রশংসনীয় গন্থে ‘ অপ্রশংসা করিয়া থাকি । আমাদের নিতান্ত কামনা যে অপ্রশংসনীয় গ্রস্থ আমাদিগের তাতে পড়ে আম । প্রশংসা করিয়া লেখক সমাজকে জানাই, }, যে আমরা বিশ্বনিন্দুক নহি । আমাদের | দুর্ভাগাক্রমে, “বং বাঙ্গালী ভাষার দুর্ভ গা ক্রমে সে রূপ গ্রন্থ অতি বিরল। . আছ | দুষ্ট খানি প্রশংসনীয় গ্রন্থ আমাদিগের হস্তগত হইয়াছে । তাই ভজি,