পাতা:বঙ্গের জাতীয় ইতিহাস (বৈশ্য কাণ্ড, প্রথমাংশ).djvu/১৩৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


> 96 বঙ্গের জাতীয় ইতিহাস [દેસર્જી-જfછ তৎপরে তৎপুত্ৰ কুণtল, তৎপরে বন্ধুপালিত, তৎপরে ইন্দ্রপালিত, তৎপরে দশধৰ্ম্ম৷ 尊 - স্ব দেবধৰ্ম্ম, তৎপরে শতধার এবং সর্ববশেষ বৃহদশ্ব বা বৃহদ্ৰথ এই কয়জন মৌর্য্য করিয়াছেন যে, এই বংশ পূৰ্ব্বে ব্রাহ্মণ ছিলেন । সাধারণের কৌতুহলনিবৃত্তির জন্ত তাহার গবেষণার ফল নিম্নে উদ্ধৃত করা হইল – যে বংশে মেবারের রাণাদিগের উদ্ভব, সেই বংশের নাম গুহিলোৎ । প্রাচীনতম শিলালিপি, তাম্রলিপি প্রভৃতিতে গুছিলপুত্র' শদের প্রয়োগ দেখিতে পাওয়া যায়। চিতোরগড়ে ১৩৩৫ সম্বতের যে একটি লিপি পাওয়া গিয়াছিল, তাহীতে নিম্নলিখিত উক্তিটি লিখিত আছে— SKSBBBBS BBBBBSBBBBBBSSSBBBSBBBSBBBSBBBSBBBSBBBS BBSBBBB S প্রাচীনকালে মেবারবংশে সিংহ নামে যে একজন রাজা ছিলেন, এখানে তাহাকে গুহিলপুত্র বলা হইতেছে। কিন্তু কোন কোন লিপিতে আবার ‘গোভিলপুত্র’ শব্দেরও প্রয়োগ দেখিতে পাওয়া যায়। ৯০৭ কলচুরি সম্বতে উৎকীর্ণ অহলণদেবীর ভেরাঘাট লিপিতে এইরূপ লিখিত আছে— “অস্তি প্রসিদ্ধমিছ গোভিলপুত্ৰগোত্রাস্তত্রীজনিষ্ট নৃপতিঃ কিল হংসপালঃ ।” গুহিলোৎ-রাজবংশাবলীতে হংসপাল নামক যে একজন রাজার পরিচয় পাওয়া যায়, এখানে তাহাকে গোভিল-পুত্র বলা হইতেছে । ংস্কৃত গুহিল-পুত্র কি গোভিল-পুত্র হইতে কেমন করিয়া যে গুহিলেtৎ শব্দের উৎপত্তি হইয়াছিল, তাহ জানা ৰায় নাই। হংসী হইতে প্রাপ্ত ১২২৪ বিক্রম সম্বস্তের একখানা লিপিতে সৰ্ব্ব প্রথম গৃহিলোৎ এই প্রাকৃতরূপ দেখিতে পাওয়া যায়। ইহাতে চাহমান পৃথীরাজের মাতুল বিহলগকে আসিক দুর্গের ( হাংসী কেল্লার) রক্ষক নিযুক্ত করিবার সময় গুছিলোতান্বয়ের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বলিয়া উল্লেখ করা হইয়াছে । গুহিল-পুত্রই হউক কি, গুছিলোৎ-পুত্রই হউক, ‘গোভিল হইতে যে এই বংশের নামকরণ হইয়াছে, তাহ নিশ্চয়। কোন কোন স্থলে আবার পুত্র শব্দ উঠাইয়া দিয়া অপত্যার্থে ষ্ট’ প্রত্যয় করিয়া ‘গৌহিল্য’ এইরূপ নামও লিপিবদ্ধ হইয়াছে। ১৩৩১ বিক্ৰম-সম্বতে উৎকীর্ণ চিতোরগড়ের লিপিতে এইরূপ লিখিত আছে— “বান্দধে গুহিল-বর্ণনয় প্রসিদ্ধাং গোঁহিলা-বংশ-ভব-রাজ-গণোহর জাতিম্।” কুমলগড়ে মামদেবের মন্দিরের প্রশস্তিতেও এই শ্লোকটি উদ্ধত হইয়াছে। গেছিল্য হইতে গোছিল এই জাতিবাচক নামটিরও উৎপত্তি হইয়াছে। ১৫•• বিক্রম সম্বতের মহুবালিপিতে তৎকালীন রাজা গোহিল্প সারঙ্গের নাম পাওয়া যায়। এই গোহিল্ল’ গেহিলা শব্দের অপভ্রংশ ব্যতীত আর কিছুই নহে। এই বংশের গুহিলবংশ গুহিলাম্বয়’ এইরূপ নামও দেখিতে পাওয়া যায়। মাংগ্রোলে ১২০২ বিক্রম সম্বতের যে একটি লিপি ध्रुंश्लिt९-श्वं