পাতা:বঙ্গের জাতীয় ইতিহাস (বৈশ্য কাণ্ড, প্রথমাংশ).djvu/২৪২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


文89 বঙ্গের জাতীয় ইতিহাস [ ४वंशः सर्ग ॰ বচন উদ্ধত করিয়াছেন এবং যে সকল কাৰ্য্য কলির আদি হইতে নিষিদ্ধ হইয়াছে বলিয়া ঘোষণা করিয়াছেন, কলির আদি হইতে কেন, মুসলমান-আধিপত্য বিস্তারের পূর্ব পর্য্যন্ত সেই সকল কাৰ্য্য প্রচলিত ছিল, তাহার প্রমাণেরও অভাব নাই । ১মত: ক্ষত্ৰিয়বৈশ্যের কোন দিন অত্যন্তাভাব হয় নাই । আমরা চাণক্যের অর্থশাস্ত্র হইতে প্রমাণ উদ্ধার করিয়া দেখাইয়াছি যে, তাহান্ন সময়ে ও ভারতের মানস্থানে ক্ষত্রিয় ও বৈশ্বজাতি বিদ্যমান ছিলেন এবং ক্ষত্রিয় ও বৈশ্ব জাতি পিস্তমান ছিলেন বলিয়াই পরবর্তী নিবন্ধকারগণ বরাবর ক্ষত্রিয়-বৈশ্ব্যের প্রতিপাদ্য স্বতন্ত্র ধৰ্ম্ম উল্লেখ করিয়া আলিতেছেন । এমন কি যিনি ক লিতে ক্ষত্রিয় ও বৈশ্বের দ্বিজাতিত্ববিলোপ ঘোষণা করিয়া গিয়াছেন, সেই রঘুনন্দনই আবার ক্ষত্ৰিয়-বৈশ্বের দ্বিজোচিতসংস্কারপ্রসঙ্গ উল্লেখ করিতে বাধ্য হইয়াছেন । তিনি সংস্কার তত্ত্বে স্পষ্টই লিখিয়াছেন যে, ‘ব্রাহ্মণ, বিশেষতঃ ক্ষত্ৰিয়বৈশ্বের মধ্যে যাহার পঞ্চদশ বর্ষ সাবিত্রী পতিত হইয়াছে, অর্থাৎ দ্বিজোতি উপনয়নসংস্কার হয় নাই, শাস্ত্রবিৎ পণ্ডিতগণ র্তাহার প্রায়শ্চিত্ত ব্যবস্থা করিয়া গিয়াছেন । এমন কি স্মাই প্রধান—‘অশৌচ ঘটিলে ব্রাহ্মণ দশ দিনে, ক্ষত্রিয় দ্বাদশ দিনে, বৈশ্য পঞ্চদশ দিনে এবং শূদ্র একমাসে শুদ্ধ হইবে।” ইত্যাদি উক্তি দ্বারাও ক্ষত্ৰিয়বৈশ্যের অস্তিত্ব ও দ্বিজত্ব স্বীকার করিয়া গিয়াছেন । ভৃশ্বগ্নিমরণঞ্চৈৰ বৃদ্ধাদিমরণস্তথা । এতানি লোকগুপ্ত্যৰ্থং কলেরাদেী মহাত্মভিঃ ॥ নিবৰ্ত্তিতানি কৰ্ম্মণি ব্যবস্থাপুৰ্ব্বকং বুধৈঃ। সময়শ্চাপি সাধুনাং প্রমাণং বেদবস্তুবেৎ ॥” ( মার্ক রঘুনন্দনধুত আদিত্য পুরাণ ) (t) *পতিত যস্ত সাবিত্রী দশবর্ষাণি পঞ্চ চ । ব্রাহ্মণস্ত বিশেষেণ তথা রাজপ্তবৈগুয়ো: | প্রায়শ্চিত্তং ভবেদেবাং প্রোবাচ বদজ্ঞাং বরঃ ।” ( রঘুনন্দনের সংস্কারতত্ত্বধৃত যমবচন ) (e) “শুদ্ধে।দ্বিপ্রো দশাহেন দ্বাদশাহেন ভূমিপঃ। বৈশু: পঞ্চদশাহোঁ শূদ্রো মাসেন শুদ্ধতি ॥” ( রঘুনন্দনের শুদ্ধিত আধুত )