পাতা:বঙ্গের জাতীয় ইতিহাস (বৈশ্য কাণ্ড, প্রথমাংশ).djvu/২৭৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


२भ अ९* । ] সৌলুক-অগরবাল-বংশ :°ልእ এই শকটকে ভারতে মুসলমান-প্রাধান্তের নির্দেশক বলিয়া গ্রহণ করিতে পারি না । ভারতীয় স্ব প্রাচীন শিলালিপি ও মুদ্রালিপিত্তে ষাছি রাজবংশের পরিচয় পাওয়া যায়। গান্ধীর, পঞ্জাব, রাজপুতনা ও সোঁরাষ্ট্রে ষাহ্যি-রাজবংশ এক কালে প্রবল প্রতাপে আধিপত্য বিস্তার করিয়াছিলেন। মুদ্রাতত্ত্ববিদ রাপসোন এই বংশীয় রাজ-গণের মুদ্রাসমূহ আলোচনা করিয়া প্রকাশ করিয়াছেন যে খৃষ্টপূৰ্ব্ব ২৫ অন্ধ হইতে ১.২৫ খৃষ্টাব্দে (মাঙ্গদ গজনীর আক্রমণকাল ) পর্যন্ত বাহিরাজগণ গান্ধারে আধিপত্য করিয়া গিয়াছেন। প্রত্নতত্ত্ববিদ ফ্লিট্‌ সাহেব সৌরাষ্ট্রের ‘সাহা’ বা ‘ষাহি’ বংশ সম্বন্ধে এইরূপ লিখিয়াছেন— “কতকগুলি ক্ষত্রপ বা মহাক্ষত্রপের নামের শেষে 'সাই' (সিংহ ) উপাধি দৃষ্ট হয়। সাধারণতঃ মুদ্রাসমূহে (অমুম্বার ) যুক্ত হ্রস্ব িবা দীর্ঘ ৭ প্রায় পরিত্যক্ত হইয় ( সাছি’ শব্দ ) সাঙ্ক ও সাহা’ রূপে মুদ্রায় উৎকীর্ণ হইয়াছে, তদ্‌ষ্টে অনেকে এই বংশ বা কুলকে 'সহ' বা সাহ এই কল্পিত বংশাখ্যা দিয়াছেন।” কিন্তু গান্ধীর হইতে আবিষ্কৃত মুদ্রাসমূহ এবং কেবল মুদ্র বলিয়া নহে, মহারাজ সমুদ্রগুপ্তের আলাহাবাদস্থ স্তম্ভলিপি আলোচনা করিলে নিঃসদেছে প্রতিপন্ন হইবে যে খৃষ্টীয় ৪র্থ শতাব্দীতে ষাহি’ ও ‘ষাহানুষাছি প্রভৃতি রাজবংশ ভারতে প্রবল ছিলেন। ঐ সকল রাজবংশকে পরাজয় করিয়া সমুদ্রগুপ্ত ভারতসম্রাটু হইয়াছিলেন । সুতরাং স্থির হইল যে খৃষ্টপূৰ্ব্ব ১ম শতাব্দ হইতে ভারতে মহত্ত্বব্যঞ্জক ঐ সকল শব্দের প্রচলন । আকবর বাদশাহ যেমন শাহানশাহ অর্থাৎ রাজাধিরাজ বলিয়া সম্বোধিত হইতেন, সেইরূপ খৃষ্ঠয় ৪র্থ শতান্ধে উৎকীর্ণ সমুদ্রগুপ্তের শিলালিপিতে 'ষাহামুষাহী’ উপাধিধারী রাজবংশেরও সন্ধান পাওয়া গিয়াছে। কেবল পারস্ত বলিয়া নহে, প্রাচীন ও অপ্রাচীন প্রাকৃত, হিন্দী, মরাঠী, গুজরাটী, উৰ্দ্দ, প্রভৃতি নানা ভাষায় এই শব্দের প্রয়োগ রহিয়াছে। কেবল মুসলমান রাজবংশ বলিয়৷ নহে, বহু পূৰ্ব্বকাল হইতে আজ পর্য্যস্ত অনেক হিন্দু রাজবংশ ‘সাহ 'সাই' বা ‘ষাহী’ উপাধি ব্যবহার করিয়া আসিতেছেন। বহুপূৰ্ব্ব কাল হইতে আজ পর্য্যন্ত হিন্দু ও মুসলমান-ধৰ্ম্ম-প্রবর্তক বা সাধুপ্রকৃতিক ফকিরগণের সা' বা ‘শাহ' উপাধি দেখা যাইতেছে, যেমন "শাহ জলাল” “বাবা নানক সা’ প্রভৃতি । মুসলমান অভু্যদয়ের পূৰ্ব্বে প্রাচীন হিন্দুরাজগণের বিভিন্ন বিভাগে যেমন শুদ্ধাধ্যক্ষ, করাধ্যক্ষ প্রভৃতি অধ্যক্ষ নিযুক্ত হইতেন, মুসলমান আমলেও সেইরূপ এক এক জন অধ্যক্ষ নিযুক্ত হইতেন, তাহদের মধ্যে কাহারও সাহ’ বা ‘শাহ’ উপাধি দৃষ্টি হয়। যথা সাহ-বনার বা BBBBB S SDDS K BDS BBBD DDDSBDBB DDDDBB BBB BBBB BBB প্রায় সকল জাতির মধ্যেই প্রচলিত হইয়াছে ।

  • Gundriss der Indo Arischen Philologie and Altertumskunde, II. Band 3 Hept. p. 31-32. t Fleet's Corpus lnscriptionum indicarum, Vol, III. p, 36 n.