পাতা:বঙ্গের জাতীয় ইতিহাস (বৈশ্য কাণ্ড, প্রথমাংশ).djvu/৩২০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


లిషి" বঙ্গের জাতীয় ইতিহাস [१क्ॐ-क७ । । উদ্ধৃত কুলপরিচয় হইতে আভাস পাটতেছি যে, মহা প্ৰভু শ্ৰীচৈতন্যদেবের আদেশে ইছার বেলকুচি আসিয়া বাস করেন এবং এই সময় হইতেই পূৰ্ব্ববঙ্গের গৌড়ীয় বৈষ্ণবসমাজে ই-হারা সন্মানিত হন। উক্ত কুলকারিকায় গোবিন্দমঙ্গলের ১০ম হইতে ১৪শ অধ্যারের বচন উদ্ভূত করিয়া এই বংশের শ্ৰীমূৰ্ত্তি প্রতিষ্ঠা এবং বিষ্ণুভক্তি ও বৈষ্ণবসেবার বিশেষ পরিচয় লিপিবদ্ধ হইয়াছে। অস্থাপি এই বংশ পরমবৈষ্ণব বলিয়া পরিচিত। এক্ষণে এই বংশে অনেক উচ্চ শিক্ষিত ব্যক্তি জন্মগ্রহণ করিয়াছেন। তন্মধ্যে স্ত্রীযুক্ত কৃষ্ণদয়াল প্রামাণিক ডেপুটী মজিষ্ট্রেট অঙ্গ ভ্ৰম । বীরহাটর সাহাচৌধুরীবংশ —সয়দাবাদ গ্রামে বীরহাটর সাহাচৌধুৰী বংশের বাস । এই বংশ অতি সুপ্রাচীন। এই বংশের ললিতমোহন চৌধুরী মহাশয় স্বনামধন্ত পুরুষ ছিলেন। নয়াপাড়ার চৌধুরীবংশ —সিরাজগঞ্জ মহকুমার অধীন নয়াপাড়ার চৌধুৰীৰংশও এষ্ট সমাজে ধনে, মানে ও বাণিজ্যসম্পদে প্রসিদ্ধ। ই ছাদের পুৰ্ব্বপুরুষ কিষণরাম মহাপ্রভুর ভক্ত ছিলেন, এই কিষণরাম হইতে ছ"হীদের বংশলতা পাওয়া যায় । 段 ধোবাখোলার চৌধুরীবংশ—এই বংশীয়ের বলিয়া থাকেন যে, মোগলৰাজত্ব কালে ইহাদের পূর্বপুরুষ সনাতন বাণিজ্যোপলক্ষে পূৰ্ব্ববঙ্গে আসিয়া ঢাকা জেলার অন্তর্গত সাভার নামক স্থানে উপনিবেশ করেন ৪ ব্যবসায়ে যথেষ্ট উন্নতি লাভ করিয়া এখানে প্রতিষ্ঠিত হন। এখানকার চাকৃলাদারের তাহার নিকট হইতে বহু টাকা ঋণ করিয়া ঋণগ্রালে জড়িত কষ্টয়া পড়েন, শেষে ঋণপরিশোধার্থ নিজ চাকুল পর্য্যন্ত ছাড়িয়া দিতে বাধ্য হন। চাকুলী লাভ করিয়া সনাতনের পুত্র রামরতন চাকুলাদীর’ উপাধি লাভ করেন। নবাব আলীবর্দী খাঁ এক সময় ঢাকায় আসেন, ঐ সময়ে নিয়ম ছিল, যে চাকুল দিয়া নবাব যষ্টিতেন, সেই চাকৃলার চাকুলদারকে রসদাদি উপঢৌকন সহ উপস্থিত হইয়। নবাবকে সন্মান প্রদর্শন করিতে হইত। নবাব সাভারের নিকট উপস্থিত হইলে চালদার নিধিরাম অমূলক আশঙ্কায় রসদাদি পাঠান পরের কথা, প্রাণভয়ে নিজ চাকুলা ছাড়িয়া যমুনাতীরে কালিকাপুরে পলাইয়। আসেন। সেই সময় হইতে র্তাহার চাকুলীও পরহস্তগত হইল। যমুনার প্রবল তরঙ্গে কালিকাপুর নদীগর্ড, শায়ী হইলে নিধিরামের দুই পুত্র জগন্নাথ ও ব্রজরাম ১১৯১ সালে নাটোর জমিদারীর অধীন ধোবাখেtল গ্রামে বসতিস্থাপন করেন । এ সময় বাণিজ্যকল্পে ভঁtহার যথেষ্ট ধনসম্পত্তি DDD BBDD D BBDDD DDDD DD BBB BB DDD BB BBD DDDD DDDS বসেন। এই সময় হইতেই এই বংশের ‘চৌধুৰী’ উপাধি হয় । বাণিজ্যোন্নতি ও বিষয়সম্পত্তি বৃদ্ধির সঙ্গে কলিকাতা প্রভৃতি নানাস্থানে ই হার মোকাম করেন । শ্ৰীবৃন্দাবনে কবীন্দ্রকুঞ্জে সাধারণের সুবিধার জন্য এক বৃহৎ অট্টালিক নিৰ্ম্মাণ, yজগন্নাথ দেবের রথের অনুকরণে রথযাত্র প্রচলন ও স্বগ্রামে বিদ্যালয়স্থাপন প্রভৃতি এই বংশের প্রধান কীৰ্ত্তি । ময়মনসিংহ জেলার কেবল মাত্র টাঙ্গাইল মহকুমার কয়েকটি গ্রামে ইহাদের সমাজ আছে। ইহাদের মধ্যে পাকুটীয়ার মওলবংশ অতি প্রাচীন, প্রসিদ্ধ ও বদান্ত । মির্জাপুরের