পাতা:বঙ্গের জাতীয় ইতিহাস (ব্রাহ্মণ কাণ্ড, প্রথমাংশ).djvu/২৩৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ষষ্ঠ অধ্যায় দশম পরিচ্ছেদ মেলী কুলীনসমাজের অবস্থা কুলীনসমাজের স্বখশান্তি অপহরণ করিয়া ঘটকবিশারদ দেবীবর লীলাখেল শেষ করিলেন । পরোক্ষেই হউক বা প্রত্যক্ষেই হউক, জ্ঞাতসারেই হউক বা অজ্ঞাতসারেই ইউক, দেবীৰর যে বিষৰীজ বপন করিলেন, বেশী দিন আর যাইতে হইল না, রাঢ়ীয় সমাজের চেষ্টায় জলবায়ুর সহায়তায় বহু শাখা-প্রশাখায় পল্লবিত হইতে চলিল। কিছু দিন পরে তাছার বিষময় ফল আস্বাদ করিয়া দূষিত কুলীনসমাজ মৰ্ম্মে মৰ্ম্মে জর্জরিত চইলেন । তাছাদের সাহচর্য্যে রাঢ়ীয় সমাজের অপরাপর ব্রাহ্মণগণ ও প্রমাদ গণিয়াছিলেন। 剔 ৰহু পূৰ্ব্বে গোঁড়াধিপ বল্লালসেন গুণ দেখিয়া কৌলীন্তমৰ্য্যাদা স্থাপন করিয়াছিলেন, F দেবীবরের বিধানে ষে দোষী অথবা যাহার কুলে দোষ স্পশিয়াছে, সেই কুলীনসন্তান এখন প্রধান কুলীন বলিয়া গণ্য হইলেন । এ অপুৰ্ব্ব নিয়মে সমাজের ইষ্ট না ছইয়া বরং অনিষ্টের স্বচনা ছইল। এখন কুলামুরাগী রাঢ়ীয় ব্রাহ্মণসন্তান পরম্পর দোষান্বেষণতৎপর হইলেন। বংশজগণ অপরূপ মেলীয় কুলীনসমাজের ধ্বংসসাধনে যথেষ্ট চেষ্ট করিতে লাগিলেন। অনেক কুলাচার্য এখন কেবল ছিদ্রান্বেষী হইয়া পড়িলেন। দেবীৰয় যেখানে সামান্ত দোষ পাইয়া যে কুল মেলভুক্ত করেন, পরবর্তী কুলাচাৰ্য্যগণ সেই সেই কুলে অকথ্য ও অভাবনীয় দোষারোপ করিয়া আপনাদের বাহাদুরী দেখাইতে লাগিলেন । এই কারণেই বর্তমান কুলীনগণ কুলাচাৰ্য্যগণের আরোপিত সকল দেযাখ্যান গ্রহণ করিতে সন্মত নহেন। বাস্তবিক মেলী কুলীনসমাজ নানাদিক্ হইতে আক্রান্ত হইয়াছিল। গৌরাঙ্গ মহাপ্রভুর অন্তধর্ণনের সহিত রাঢ়ে বঙ্গে ভয়ানক মুসলমান-অত্যাচার আরম্ভ হইয়াছিল, এই সময়ে উৎপীড়িত হিন্দুজাতির কুলমান রক্ষা কৰা কঠিন হইয়া পড়িয়াছিল । সহায়, সম্পত্তি ও শক্তিশালী হিন্দু জমিদারবর্গের সংখ্যা তখন এই বাঙ্গালায় নিতান্ত কম ছিল না, তাহারা সকলে মনে করিলে অত্যাচার-নিবায়ণে অনেকটা সফলকাম হইতে পারিতেন। কিন্তু সেদিকে বড় কাহারও মন ছিল না। সকলেই স্ব স্ব প্রভুত্ব লইয়া ব্যস্ত ছিলেন । আপনি বড় হইয় অপরকে লঘু করিব, এই দিকেই তখনকার দলাদলি-প্রিয় সমাজের লক্ষ্য ছিল। অধিকাংশ লোকই মুসলমানরাজের কৃপাভিখারী, মুসলমানী রীতিনীতির অনুরাগী, স্বধৰ্ম্মে বিশ্বাসপূন্য, এমন কি কেহ কেহ মুসলমানধৰ্ম্মের নিতান্ত পক্ষপাতী ՀԵ