পাতা:বঙ্গের জাতীয় ইতিহাস (ব্রাহ্মণ কাণ্ড, প্রথমাংশ).djvu/২৬২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ষষ্ঠ অধ্যায়। চতুর্দশ পরিচ্ছেদ ৷ ” বংশজবিবরণ। ইতিপূৰ্ব্বে লিথিয়ছি, খৃষ্টীয় ১৩শ শতাব্দীর শেষভাগে রাজা দনেীজ-মাধবের সময় হইতে ংশজের স্বত্রপাত হয়। ১৪শ শতাব্দীতে বংশজের সংখ্যা ক্রমশঃই বুদ্ধি হইতে থাকে এৰ র্তাহার কুলীনসমাজের অনিষ্টসাধনের চেষ্টা করেন। তখনও কুণীনের মধ্যে সৰ্ব্বদ্বারি-বিবাহপ্রথা প্রচলিত থাকায়ং এবং কুলচাৰ্য্যগণের প্রভাব ও কুলরক্ষণে যত্ন থাকায় বংশজসমাজ মুস্ত৯ কোত্তোলন করিতে পারেন নাই, অথবা কুলীনসমাজের মধ্যেও পাত্রাভাবে তেমন বিশৃঙ্খলত উপস্থিত হয় নাই। খৃষ্টীয় ১৫শ শতবে যবনপ্রভাবে রাঢ়ীয় সমাজে নানা বিপত্তি ও কুলহানিকর নানা দোষ প্রবেশ করায়, অনেক কুণীন কুল হারাইয়৷ বংশজমধ্যে পরিগণিত হন। পরে দেবীবরের আবির্ভাবে কুলীন ও বংশজ- সমাজে মহাসঙ্ঘর্ষ উপস্থিত হইয়াছিল। এ সময়ে একু প্রকার সমস্ত কুলীমের কুল দোষ-সংক্রমিত হওয়ায় বংশজ-সমাজ কুলীনদিগকে স্বদলভুক্ত করিবার চেষ্টায় ছিলেন, কিন্তু দেবীবর প্রমুখ কুলাচার্যগণের প্রভাবে তাছাদের উদেপ্ত সুসিদ্ধ হইতে পারে নাই। 蠱 দেবীবর কুলাচাৰ্য্যগণের অধিকার ও পদমর্যাদা অক্ষুণ্ণ রাখিবার জন্ত মাম মাত্র কুলীনগণকে এইয়া মেলের সৃষ্টি করিলেন । কোন কোন সুপণ্ডিত সমাজের ভাবী মঙ্গলামঙ্গল বিচার না করিয়া দেবীবরের সহিত যোগদান করিয়াছিলেন। শুভরাজখান গ্রভূতি কোন কোন বংশজসন্তাম দেবীবরের কৃপায় মের্লী কুলীন বলিয়া সম্মানিত ইহঁয়াছিলেন বটে, কিন্তু রাঢ়ের সমাজহিতৈষী শাস্ত্রবিশারদ ব্রাহ্মণগণ অনেকেই দেববরের অপুৰ্ব্ব কষ্যের অমুমোদন করেম নাই। অনেক কুলীন-সন্তানই দেবীবরের মেল রূপ গোলকধ ধায় প্রবেশ করিতে সন্মত হম’ মাই বলিয় তাহার “দেবীবর ছাট বংশজ” নামে পরিগণিত হইলেন। * কুলীন-সন্তান বা সম্মানিত বংশজ-সন্তানগণের মধ্যে যাহার মেলের অনুমোদন করে নাই, অথবা দেবীবরের বিরুদ্ধাচরণ করিয়াছিলেন, তাহদের মধ্যে প্রসিদ্ধ অমরকোষের টীকাকার রায় মুকুট বৃহস্পতির পুত্র কবীন্দ্র রাম-বিশ্বাস, বাসুদেব সাৰ্ব্বভৌমের পিতা নরহরি (মহেশ্বর ) বিশারদ, স্মৰ্ত্ত রঘুনন্দলের পিতামহ ধনঞ্জয় মিশ্র প্রভৃতির মাম উল্লেখ কর বাইতে পারে। বড়ই আশ্চয্যের বিষয়, রায়মুকুট—“রাঢ়ায়ামপি গাঢ়নিৰ্ম্মলকুলচ্ছত্ৰং কুলীনগ্রণী:” এইরূপে “কুলীনগ্রণী" বলিয়া আপনার পরিচয় দিলেও তাহার পুত্র রামবিশ্বাস দেবীধরের (১) ১৬২ পৃষ্ঠ ভ্রষ্টব্য। (২) ১৮৯–১৯• পৃষ্ঠা স্রষ্টব্য।