পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/১৫২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


> ob বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় । ঐ নামে আছে কি মাধুরী। শ্রবণে রহল স্থধা ভরি ॥ চিতে নিতি মুরতি-বিকাশ। অমিয়া-সায়রে যেমন বাস ॥ আখিতে দেখিতে করে সাধ । এ যদুনন্দন মন কাদ ॥ যদুনাথ দাস । ইনি রত্নগৰ্ভ আচার্য্যের পুত্র ও মহাপ্রভুর সামসময়িক। হেদে গো রামের মা ননীচোরা গেল এই পথে । নন্দ মন্দ বলু মোরে লাগালি পাইলে তারে সাজাই করিব ভাল মতে ॥ শূন্ত ঘরখানি পায়া সকল নবনী খায়্যা দ্বারে মুছিয়াছে হাতখানি। অঙ্গুলির চিনাগুলি বেকত হইবে বলি ঢালিয়া দিয়াছে তাহে পানী। ক্ষীর ননী ছেন চাচী উভ করি শিকাগাছি যতনে তুলিয়া রাখি তাতে। আনিয়া মথনদণ্ড ভাঙ্গিয়া ননীর ভাণ্ড নামতে থাকিয়া মুখ পাতে ॥ ক্ষীর সর যত হয় কিছুই নাহিক রয় কি ঘর-করণে বসি মোরা। যে মোরে দিলেক তাপ সে মোর হয়্যাছে বাপ পরাণে মারিব ননীচোরা ॥ যশোদার মুখ হেরি রোহিণী দেখায় ঠারি যে ঘরে আছয়ে যাদুমণি। ঘর আঁধিয়ারে পশি বেকত হইল শশী ধাইয়া ধরিল নন্দরাণী ॥ যদুনাথ কয় দঢ় এবার কাকুরে এড় আর কভু না খাইবে ননী ॥ কি বলিব আর বঁধু কি বলিব আর। নয়নের লাজে নাহি ছাড়ে লোকাচার ॥ গোকুলে গোআলা কুলে কেবা কি না বলে। তবু মোর ঝুরে প্রাণ তোমা না দেখিলে ৷ একে মরি মনোদুখে আর গুরুর গঞ্জন । ডাকিয়া সুধায় হেন নাহি কোন জনা ॥ ডরে ডরাইয়া সে বঞ্চিব কত কাল। তুয়া প্রেম-রতন গাথিব কণ্ঠ-মাল ॥ নিশি দিশি অবিরত পোড়ে মোর হিয়া । বিরলে বসিয়া কান্দি তোমা নাম লয়্যা ॥ তোমা দেখিবারে বধু আসি নানা ছলে । লোক-ভয় লাগিয়া সে ডরে প্রাণ হালে ৷ না দেখিলে মরি যারে তারে কিবা ভয়। যদুনাথ দাস বলে দঢ়াইলে হয় ॥