পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/১৭৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


లిg বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় । না থাকিব তোর ঘরে সুখে থাক্ তোরা। আবাল-বৃদ্ধ মোরে বলে ননী-চোরা ॥ আঁটিয়া না বান্ধ মা বন্ধনে পাছে মরি। হের দেখ কর পদ ফিরাইতে নারি ॥ কহে কামদেব দাস আমি দিব ননী । বাধন ছাড়িয়া দেহ শুন নন্দরাণী ॥ গোপীরমণ । মো যদি কখন ঘুমের আলসে শুতিএ সে তনু লাগি । মোর অঙ্গ-জল বসনে মোছএ রজনী পোহীয় জাগি ॥ সখি এই সে বুঝিমু সাচি। সে হেন মাধব দূরদেশে যাবে মুঞি সে রহিন্থ বাচি । সে সব পীরিতি আরতি চরিতি সে কথা কহিব কায়। সোঙরি সোঙরি সে সব কাহিনী পরাণ ফাটিয়া যায় ॥ বিধির ঘটন কত নারীগণ সুখেতে বৈসএ তারা। মোর সে কপালে এতেক পোড়নি এ হেন বিষের জ্বালা ॥ এ দুখ-বেদন না যায় সহন কি কায পরাণে জীয়া । এ গোপীরমণ আগে সে মরিবে তোমার নিছনি লয়্যা ॥ রাজা নৃসিংহদেব। ইহার বিস্তর পদ “পদ-সমুদ্র”-গ্রন্থে দৃষ্ট হয়। ইনি জাতিতে ক্ষত্রিয় ছিলেন। “সারাবলী” নামক গ্রন্থে দৃষ্ট হয়, ইহার নিবাস মানভূমে ছিল। কৃষ্ণ-রূপ : নব-নারদ-নীল সুঠাম তনু । শ্ৰীমুখাকৃতি ঝলমল চাদ যত্ন ॥ শিরে কুঞ্চিত কুন্তল-বন্ধ বু টা। ভালে শোভিত গোময়-চিত্র ফোট । অধরোজল রঙ্গিম বিম্ব জানি । গলে শোভিত মতিম হারমণি ॥ ভুজলম্বিত অঙ্গদ মণ্ডলয়া । নখ চন্দ্রক গৰ্ব্ব বিখণ্ডনয়া |