পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/২০৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


سو 6t لا لا চৈতন্তের প্রেম। বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় । চাহ যদি জয়পত্র লিখে দিতে পারি। তোমার বিচারে আজি মানিলাম হারি ॥ এত শুনি যোগী করে খুটুর-থাটুর। প্রভু বলে ভক্তি কর তর্ক বহুদূর ॥ ভক্তিতে মিলায় কৃষ্ণ এইত বিচার। বেদ-বেদান্তের মত কর ছারখার ॥। বহু শাস্ত্র আলোচিয়া বল কিবা ফল । কৃষ্ণ বিনা নাহি আছে দাড়াবার স্থল ৷ এত বলি প্ৰভু মোর নয়ন মুদিল । লোমাঞ্চিত কলেবর ভক্তি উছলিল ॥ - পড়িতে লাগিল অশ্র হৃদয় বাহিয়া । কেীপীনের গ্রন্থি ক্রমে যাইল খসিয়া ॥ থরথরি হৃৎকম্প শরীর ঘামিল । কৃষ্ণ বলি ডাক দিয়া ঢুলিতে লাগিল ৷ কৃষ্ণ হে কোথায় আছ প্রভু দয়াময়। ভক্তি বিতরিয়া কর বিশুদ্ধ হৃদয় ॥ এই কথা বলি প্রভু কান্দিতে লাগিল। মনের আবেগ যেন দ্বিগুণ বাড়িল ৷ ভাল মন্দ নাহি শুনে প্রভু বিশ্বম্ভর । ফুলে ফুলে কান্দিতে লাগিল নিরন্তর ॥ তমালের বৃক্ষ এক সম্মুখে দেখিয়া। কৃষ্ণ বলি ধেয়ে গিয়া ধরে জড়াইয়া ॥ এই ভাব দেখি যোগী আপন নয়নে । জড়াইয়া ধরে তবে প্রভুর চরণে ॥ যোগী বলে বিচার না করিবারে মাগি । উৎকণ্ঠ বাড়িছে মোর এবে কৃষ্ণ-লাগি । দেখিয়া তোমার ভাব নবীন সন্ন্যাসী । বিচার করিতে মুঞি নাহি অভিলাষী। অপূৰ্ব্ব রতন ভক্তি দেহ মোর মনে। এই নিবেদন করি তোমার চরণে ॥ যোগীর এতেক বাণী শুনিতে না পায়। অশ্রুজলে প্রভু মোর পৃথিবী ভিজায় ॥ ।