পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/২৩১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বৈষ্ণব-চরিতাখ্যান—বৃন্দাবনদাস-১৫০৭–১৫৮৯ খৃষ্টাব্দ। SSb"9א পুলকে পূর্ণিত হৈল সৰ্ব্ব কলেবর। স্থির নহে প্রভু কম্প-ভরে থরথর। শ্ৰীমান্‌ পণ্ডিত-আদি যত ভক্তগণ। দেখেন অপূৰ্ব্ব কৃষ্ণ-প্রেমের ক্ৰন্দন ॥ চতুৰ্দ্দিগে নয়নে বহয়ে প্রেমধার। গঙ্গা যেন আসি করিলেন অবতার। মনে মনে সভে ভাবেন চমৎকার। এমত ইহানে কন্তু নাহি দেখি আর ॥ শ্ৰীকৃষ্ণের অনুগ্রহ হইল ইহানে। কি বিভব পথে বা হইল দরশনে ॥ বাহাদৃষ্টি প্রভুর হইল কথোক্ষণে । শেষে প্রভু সম্ভাষা করিলা সভা-সনে ৷ প্রভু কহে বন্ধু সব আজি ঘরে যাহ। পরদিন আসিতে কালি যথা বোলো তথা আসিবারে চাহ ॥ অনুরোধ । তোমা সভা সহিত নিৰ্জ্জন এক স্থানে । মোর দুঃখ সকল করিব নিবেদনে ॥ কালি সভে শুক্লাম্বর-ব্রহ্মচারি-ঘরে । তুমি আর সদাশিব চলিবে সত্বরে ৷ সময় করিয়া সভে করিলা বিদায় । যথাকার্য্যে রছিলেন বিশ্বম্ভর রায় ॥ নিরবধি কৃষ্ণাবেশ প্রভুর শরীরে। মহা-বিরক্তের প্রায় ব্যবহার করে। বুঝিতে না পারে আই পুত্রের চরিত। তথাপিহ পুত্র দেখি মহা আনন্দিত। কৃষ্ণ কৃষ্ণ বলি প্রভু করেন ক্ৰন্দন। আই দেখে পূর্ণ হয় সকল অঙ্গন ॥ কোথা কৃষ্ণ কোথা কৃষ্ণ বোলয়ে ঠাকুর। বলিতে বলিতে প্রেম বাঢ়য়ে প্রচুর। কিছু নাহি বুঝে আই কোন বা কারণ। কর-যোড়ে গেলা আই গোবিন্দ-শরণ ॥ আরম্ভিলা মহাপ্রভু আপন প্রকাশ। অনন্ত-ব্রহ্মাণ্ডময় হইল উল্লাস ৷